হতাশার ঘোর কাটিয়ে জয়ে ফিরতে চান অধিনায়ক

অস্ট্রেলিয়াকে ৬২ রানে, নিউ জিল্যান্ডকে ৬০ রানে গুটিয়ে দিয়ে কী বিব্রতকর স্বাদই না দিয়েছে বাংলাদেশ। এবার নিজেদের মাঠে নিজেরাই সেই দুঃস্বপ্নের শিকার। তবে হতাশার এই ঘোর দ্রুত কাটিয়ে পরের ম্যাচেই জয়ে ফিরতে চান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে রোববার ৭৬ রানেই অলআউট হয়ে বাংলাদেশ হেরেছে ৫২ রানে। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রান এটি, দেশের মাঠে সর্বনিম্ন। অথচ লক্ষ্য ছিল না খুব একটা কঠিন। উইকেট ছিল না ভয়ঙ্কর। ১২৯ রান তাড়ায় প্রয়োজন ছিল ¯্রফে মিরপুরের স্বাভাবিক ব্যাটিং।

কিন্তু বাংলাদেশ উইকেট হারিয়েছে অস্বাভাবিকভাবে। বিনা উইকেটে ২৩ থেকে ৩ উইকেটে ২৫। ৪ উইকেটে ৪৩ থেকে ৬ উইকেটে ৪৩। এভাবে একটির পর একটি উইকেট হারানোকেই দলের হারের কারণ বলছেন মাহমুদউল্লাহ। “ওদেরকে ১৩০ রানে (১২৮) আটকে রেখে বোলাররা দারুণ করেছে।

আমরা ব্যাটিংয়ে শুরুটা ভালো করেছিলাম। কিন্তু সেই শুরু ধরে রাখতে পারিনি। ঝাঁক ধরে উইকেট হারিয়েছি। আশা করি আমরা ঘুরে দাঁড়াব এবং আরও শক্তভাবে ফিরব।” “এমনিতে আমাদের মিডল অর্ডার ভালো ব্যাট করছে। টপ অর্ডার গত ম্যাচে এবং ভালো করেছে। যেখানে ঘাটতি ছিল, তা হলো জুটি।

আশা করি আমরা ইতিবাচক দিকগুলো নিতে পারব এবং দেখব কোথায় কাজ করতে হবে।” সিরিজ জয়ের লড়াইয়ে এখনও যে বাংলাদেশই এগিয়ে, তা মনে করিয়ে দিয়েছেন অধিনায়ক। “আমরা এখনও এগিয়ে (সিরিজে)। দুটি ম্যাচ এখনও বাকি। পরের ম্যাচ জিতে আমরা সিরিজ জয়ের চেষ্টা করব।”

কোচ রাসেল ডমিঙ্গোও এই ম্যাচের হতাশা নিয়ে পড়ে না থেকে তাকাতে চান সামনে। “জানি, দিনটি আমাদের জন্য ভালো ছিল না। তবে এটা নিয়ে খুব বেশি ভাবনায় ডুবে থাকার সুযোগ নেই। ইতিবাচক দিকগুলোয় মনোযোগ দিতে হবে এবং সেগুলো দুই দিন পরের ম্যাচে বয়ে নিতে হবে। কারণ, ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ।” সিরিজের চতুর্থ ম্যাচ বুধবার।

খেলার সময় ডেস্ক, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১;

Leave a Reply

Your email address will not be published.