অমর একুশে বইমেলা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্তের অপেক্ষা

অমর একুশে বইমেলা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্তের অপেক্ষা
অমর একুশে বইমেলা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্তের অপেক্ষা

চাঁদপুর সময় রিপোট-অমর একুশে বইমেলা নিয়ে আবারও আসতে পারে নতুন সিদ্ধান্ত। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে মেলার আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি এই সিদ্ধান্ত জানাতে পারে। যদিও বৃহস্পতিবার বিকালে ১৮ জন প্রকাশক বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজীর সঙ্গে দেখা করে মেলার সময়সীমা বাড়ানোর প্রস্তাব দেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ পূর্বের নীতিমালা অনুযায়ী ছুটির দিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা এবং অন্য দিনগুলোতে বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চালু রাখার প্রস্তাব করেন। এ সময় উপস্থিত প্রকাশকদের মধ্যেই দেখা দেয় মতবিরোধ। তখন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী বলেন, ‘আপনার সবাই সম্মিলিতভাবে সুনির্দিষ্ট একটি প্রস্তাব দিন।’ এ সময় প্রকাশকরা বিকাল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলার চালু রাখার প্রস্তাব করেন। তবে এই প্রস্তাবনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে কথা বলে জানাবেন বলে প্রকাশকদের আশ^স্ত করেন বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাম্রলিপি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী তরিকুল ইসলাম রনি আমাদের সময়কে বলেন, ‘আমরা পূর্বের নীতিমালা অনুযায়ী মেলা পরিচালনার প্রস্তাব দিয়েছি। তবে বাংলা একাডেমি থেকে এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত জানায়নি।’ বৈঠকে উপস্থিত চারুলিপি প্রকাশনের স্বত্বাধিকারী হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘আমরা সম্মিলিতভাবে বিকাল ৪টা থেকে ৮টা পর্যন্ত মেলা পরিচালনার প্রস্তাব দিয়েছি। আশা করছি আগামী দুয়েকদিনের মধ্যে বাংলা একাডেমি থেকে সিদ্ধান্ত পাব।’ তবে জানতে চেয়ে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজীকে একাধিকবার তার মুঠোফোনে কল করেও তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৮ মার্চ বিকালে মেলার উদ্বোধন করেন। এর পর থেকে ছুটির দিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা এবং অন্য দিনগুলোতে বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চলে। কিন্তু করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত ২৯ মার্চ করোনা প্রতিরোধে ১৮টি নির্দেশনা দেয় সরকার। সেখানে সব ধরনের মেলা ও জনসমাবেশের বিষয়ে নিরুৎসাহিত করা হয়। এরপর বইমেলা বন্ধ হওয়া নিয়ে আলোচনা ওঠে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত বুধবার বইমেলার সময়সীমা কমিয়ে বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত করা হয়। যদিও গতকাল বৃহস্পতিবার কোভিড-১৯ জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক শহীদুল্লাহ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বইমেলা বন্ধের সুপারিশ করে।

এদিকে গতকাল মেলার ১৫তম দিন বৃহস্পতিবার দ্বার খুলে বিকাল ৪টায়। চলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত। আজ শুক্রবার অমর একুশে বইমেলা ২০২১-এর ১৬তম দিন। ছুটির দিন হওয়ায় মেলা শুরু হবে বেলা ১১টায় এবং চলবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.