আওয়ামী লীগ আগামী জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত

মতলব উত্তর প্রতিনিধি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি নেতারা এখন গলাবাজি করে রাজনীতির মাঠ গরম করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম।

বৃৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) বিকেলে চাঁদপুর মতলব উত্তরের মোহনপুরস্থ নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এমন মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, বিএনপি এখন জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন একটি রাজনৈতিক দল। পক্ষান্তরে, আওয়ামী লীগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই মুহুর্তে দেশের একমাত্র সুসংগঠিত ও শক্তিশালী রাজনৈতিক দল।

ত্যাগী নেতারা আওয়ামী লীগের আস্থার ঠিকানা দাবি করে মায়া চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ আগামী জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত। ত্যাগী নেতাদের দলে কোণঠাসা করে না রাখতে দলের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পকেট ভারী করার জন্য লোক সৃষ্টি করা যাবে না, দুঃসময়ের কর্মীরাই দলের আসল বন্ধু। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের আমলেই শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, যোগাযোগ, জ্ঞান-বিজ্ঞান, তথ্যপ্রযুক্তি, ক্রীড়া, রেলপথ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ, নৌযোগাযোগসহ সকল খাতেই ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। বিএনপি আজ যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে এবং যাবে বলেও মনে করেন তিনি। শেখ হাসিনার আদর্শকে ধারণ করে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলের জন্য কাজ করতে হবে। যেকোনো পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে, এমন কোনো কাজ করা যাবে না যাতে সরকারের উন্নয়ন ম্লান হয়ে যায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কার্যকারী কমিটির সদস্য সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু, জেলা পরিষদের প্যেোনল চেয়ারম্যান এইচএম জাহাঙ্গীর আলম, ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব মুক্তার হোসেন গাজী, ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম গাজী, সাবেক চেয়ারম্যান লোকমান মুন্সি, যুবলীগ নেতা হাসান মোর্শেদ চৌধুরী আহার, ছেংগারচর পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আল মাহমুদ টিটু মোল্লা, এ্যাড. সেলিম মিয়া, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মিনহাজ উদ্দিন খান, সাবেক মহানগর ছাত্রলীগের সহ সভাপতি লিখন সরকার, যুগ্ম আহ্বায়ক তামজিদ সরকার রিয়াদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ, জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মেহেদী হাসান চৌধুরী, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সম্র্রাট গাজী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.