হাইমচরে আগুন দিয়ে অন্যকে ফাঁসানোর অভিযোগ

হাইমচর উপজেলার আলগী দক্ষিণ ইউনিয়নের দক্ষিণ আলগী গ্রামের রাতের অন্ধকারে নিজের খের এ আগুন লাগিয়ে অন্যকে ফাঁসানো চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

দক্ষিণ আলগী গ্রামের আনা মিয়া মাল১৩ সেপ্টেম্বর রাত ১ টায় নিজের নাড়া-পাড়ায় আগুন লাগিয়ে তার দায় পাশ্ববর্তী আ. বারেক মালের পরিবার উপর চাপিয়ে দেওয়া চেষ্টা করে বলে জানাযায়।

স্থানীয় সুত্র জানায়, কিছু দিন পূর্বে আনা মিয়া ও আঃ বারেক মালে মধ্যে জমি ও গাছের ফল পাড়া নিয়ে ঝগড়া হয়। ঝগড়ার প্রেক্ষিতে উভয়ের মধ্যে মারামারি ও সংঘর্ষের ঘটনায় আঃ বারেক মাল হাইমচর থানায় একটি মামলা করেন। ঐ মামলার আসামী আনা মিয়া মালের ছেলে মিজান মাল জেল হাজতে রয়েছে।

এ ব্যাপারে আঃ বারেক মালের ছেলে জুয়েল মাল জানান গতকাল (শনিবার) প্রায় ১ টার দিকে আমার বাবার কিনা জমিতে গাছে ডাল কাটতে গেলে জলিল মাল আমাদের কে বাঁধা দেয়। তারপর রাত ১.৩০ মিনিটে আনা মিয়া মালের খের এর পাড়ায় কে বা কারা কিংবা নিজেরা আগুন লাগিয়ে দেয়। সকালে আনা মিয়া মাল মানুষের জানায় বারেক মাল তার ছেলে আগুন দিয়েছে। আনা মিয়ার সাথে আমাদের কোর্টে মামলা চলমান রয়েছে।

আমাদের কে পাষানোর জন্য আনা মিয়া মালের এটি একটি নতুন কৌশল। সে নিজের নাড়াপাড়ায় আগুন লাগিয়ে আমাদের দায় চাপাচ্ছে। আমরা এ ব্যাপারে কিছুই জানি না। ইতিপূর্বে আমাদের সাথে গাছের ফল পাড়া নিয়ে ঝগড়া হয়। আমাকে মেরে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দিলেন আমরা মামলা করি। মামলার একজন জেল হাজতে রয়েছে। আমাদের মামলাকে দুর্বল করার জন্য মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র করে পাষানোর জন্য বিভিন্ন কায়দা অপপ্রচার চালাচ্ছে। এঘটনার ব্যাপারে আমরা কিছুই জানি না। তারা তাদের হাজতে আসামী জামিন করতে এ নাটক করছে। আমরা প্রশানের কাছে অনুরোধ সঠিক তদন্তের মাধ্যে বিচার দাবী করছি।

এ ব্যাপারে আনা মিয়া মাল মিয়ার ছেলে সেলিম মিয়া জানান রাতে ১ টায় দিকে আমাদের খের এর পাড়ায় ৪ জন লোক আগুন লাগিয়ে দৌড় দিয়ে পালিয়ে। আমি ঘর থেকে বের হয়ে দেখি আগুন চলছে।

হাইমচর প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.