আপনের উপহারে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন পূরণ হলো শিক্ষিত বেকার যুবকের

সামাজিক সংগঠন আপনের পক্ষ থেকে চাঁদপুরে বছরব্যাপী বিভিন্ন মানবিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি দু’টি ঈদে অস্বচ্ছল ও নিম্নবিত্তদের খাদ্যসামগ্রী উপহার দেয়া হয়।

এবছর সেই ঈদ উপহারের সংখ্যা কমিয়ে একজন অস্বচ্ছল শিক্ষিত যুবককে ব্যবসা করার জন্যে ৮০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে। ২৮ এপ্রিল বুধবার বিকেলে চাঁদপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ হলরুমে প্রধান অতিথি হিসেবে যুককের মায়ের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। এছাড়াও অর্ধশতাধিক নিম্নবিত্ত অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ভালো কিছু করার জন্য প্রয়োজন ভালো মন এবং ভালো চিন্তার। আজকে সেই কথাটিই প্রমাণ করেছে সামাজিক সংগঠন আপন। সংগঠনের পক্ষ থেকে একজন শিক্ষিত বেকার যুবককে ব্যবসা করার জন্য অর্থ সহায়তা দেয়া হয়েছে। এটি খুবই ভালো উদ্যেগ। এতে করে একজন যুবক স্বাবলম্বী হবার কিছুটা হলেও সুযোগ পেল। এভাবে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান এবং অন্যান্য সংগঠনগুলো এগিয়ে এলে দেশে আর দারিদ্রতা থাকবে না।

জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা বেশিরভাগ মানুষ সব সময় আমিত্বের মধ্যে ডুবে থাকি। আমি কি করে ভালো থাকবো, আমি কি কবে উন্নত জীবন যাপন করব- সেই চিন্তায় বিভোর থাকি। অথচ আমরা কখনো চিন্তা করিনা, আমার সমাজ যদি ভালো না হয়, পরিবার-প্রতিবেশী যদি ভালো না থাকে, তাহলে আমিও ভালো থাকতে পারবো না।
আমাকে ভালো থাকতে হলে আমাদেরকে ভালো রাখতে হবে। তাই আসুন আমরা সবাই মিলে ভালো থাকার চেষ্টা করি। একজন অন্যজনের পাশে দাঁড়াই।

অঞ্জনা খান মজলিশ আরো বলেন, আমাদের ইসলামে যাকাত দেয়ার বিধান রয়েছে। আমরা যদি শুধুমাত্র ইসলামের এই বিধানটি সত্যিকার অর্থে মেনে চলি, তাহলে একজন মানুষও আর হতদরিদ্র থাকার সুযোগ নেই। অন্যকে ঠকিয়ে, দুর্নীতি করে কেউ যদি অঢেল সম্পত্তির মালিক হয়, তবে দুনিয়া ও আখেরাতে তার দুটি ভাবে শাস্তি পেতে হবে। কেউ যদি মনে করে, অন্যায় কাজ করে, দুর্নীতি করে, পার পেয়ে যাবে, তবে সেটি তার ভুল ধারণা।
সে এই দুনিয়াতেই একদিন না একদিন শাস্তি ভোগ করবেন, এটাই প্রকৃতির নিয়ম। আসুন আমরা দেশ এবং দেশের মানুষকে ভালবাসি। তবেই মানুষ হিসেবে আমাদের জীবন সার্থক হবে।

আপনের প্রতিষ্ঠাতা ও আহ্বায়ক রোটারিয়ান ডা. রাশেদা আক্তারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ওয়াদুদ, ডেপুটি কমান্ডার ইয়াকুব আলী মাস্টার, মহসিন পাঠান, আপনের উপদেষ্টা রোটারিয়ান ডা. মাসুদ হাসান, চাঁদপু রেলওয়ের শিশু একাডেমির অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, আপনেন কার্যকরি সদস্য রওশ আরা, সদস্য সচিব আশিক বিন রহিম, সদস্য এএম সাদ্দাম হোসেন, আল আমিন প্রমুখ।

স্টাফ করেসপন্ডেট, ২৮ এপ্রিল ২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published.