‘মুক্তিযুদ্ধ-বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের প্রশ্নে আপস নয়’

 

‘মুক্তিযুদ্ধ-বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের প্রশ্নে আপস নয়’

 

স্টাফ রিপোর্টার

 

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বাংলাদেশের গণমাধ্যম থাকবে মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে, বাংলাদেশের পক্ষে ও বাংলাদেশের জাতির পিতার পক্ষে। মহান স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ, বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর প্রশ্নে কখনো আপস করা যাবে না। কারণ বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক এবং অভিন্ন।

সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবে বাংলাদেশ প্রতিদিন-সনি রাংগস লিমিটেড টি-২০

বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০২১ এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন-রাসেল ইন্ডাস্ট্রিজ টি-২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০২১ কুইজ রাফেল ড্র পুরস্কার

বিতরণী অনুষ্ঠান প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এনামুল হক শামীম বলেন, বঙ্গবন্ধু না হলে বাংলাদেশ হতো না। বঙ্গবন্ধু ও বাঙালির মুক্তিযুদ্ধ, এটি হলো আমাদের অহংকার।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে তার আদর্শকে হত্যা করা যায়নি।

তিনি আরও বলেন, এখন বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ

হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্বে উন্নয়নের সবগুলো সূচক অর্জিত হওয়ার কারণে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই স্বল্প উন্নত দেশ থেকে মধ্যম

আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।

 

 

গণমাধ্যম হচ্ছে সমাজের দর্পণ- এমনটা উল্লেখ করে উপমন্ত্রী শামীম বলেন, সাংবাদিকরা দেশ ও জাতির কল্যাণে সর্বদা কাজ করে। করোনাকালে সংবাদকর্মীরা ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন। তাদের উৎসাহিত করতে প্রধানমন্ত্রী প্রণোদনা দিয়েছেন। সাংবাদিকরা নানা মতাদর্শের হতে পারেন। তবে বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধের প্রশ্নে কখনো আপস করবেন না।

 

 

অনুষ্ঠানে র‌্যাফেল ড্রতে বাংলাদেশ প্রতিদিন-সনি র‌্যাংগস কুইজের প্রথম পুরস্কার সনি ৪৩ ইঞ্চি টিভি পুরস্কার জিতেছেন আরাফাত খান, দ্বিতীয় পুরস্কার র‌্যাংগস ৪০ ইঞ্চি টিভি পেয়েছেন নুরুল আহাদ, তৃতীয় পুরস্কার র‌্যাংগস ৩২ ইঞ্চি টিভি পেয়েছেন

মোশাররফ হোসেন এবং চতুর্থ পুরস্কার র‌্যাংগস সাউন্ড বার পেয়েছেন হাবিবুল্লাহ।
অপরদিকে রাসেল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের প্রথম পুরস্কার ১০০ সিসি মোটরসাইকেল পেয়েছেন নুসরাত ও দ্বিতীয় পুরস্কার ৮০ সিসি মোটরসাইকেল পেয়েছেন লামিয়া।
বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক আবু তাহের, রাসেল ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক শামসুল বাশার, সহকারী পরিচালক মাহমুদুল হাসান, র‌্যাংগস ইলেক্ট্রনিক্সের ম্যানেজার (মার্কেটিং) মোহাইমিনুল ইসহাক, ওসমান গনি, ইরতেজা বিন আমিন, মো. শফিকুল ইসলাম, মো. সাদ্দাম হোসেন, মিন্টু পাল, গোলাম মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ও মোহাম্মদ মামুন রানা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.