আমার প্রার্থীতা ফিরিয়ে দেয়া হোক, না হয় শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের প্রার্থীতাও বাতিল করা হোক

আশিক বিন রহিম: চাঁদপুর জেলা বিএনপি’র দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি পদে মাহবুবুর রহমান শাহিনের প্রার্থীতা বাতিলের বিষয়ো সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৮ মার্চ সোমবার রাতে চাঁদপুর প্রেসক্লাবে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চাঁদপুর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও সভাপতি প্রার্থী মাহাবুবুর। রহমান শাহিন।
তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পর চাঁদপুর জেলা বিএনপি’র দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে বিএনপির সকল নেতাকর্মীদের মত আমিও কিছুটা আনন্দিত হয়েছিলাম। আমি এ সম্মেলনে নেতাকর্মীদের অনুরোধে সভাপতি প্রার্থী হয়েছিলাম। আজকে মনোনয়পত্র যাচাই-বাছাইয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনতন্ত্রের ৭ এর খ- ধারায় সভাপতি প্রার্থী হিসেবে আমার প্রার্থীতা বাতিল করেছে। অথচ একই ধারায় জেলা বিএনপির আহ্বয়কের প্রার্থীতা বাতিল হবার কথা। তাহলে কি বিএপিতে আমার জন্যে আলাদা গঠনতন্ত্র। আমার প্রার্থীতা বাতিল হলে জেলা বিএনপির বর্তমান আহ্বয়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের প্রার্থীতাও বাতিল হবার কথা।
তিনি আরো বলেন, আমি দল এবং দলের নেতাকর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমি চাইবো আমার দলের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকুক। তাই আমি দাবী জানাচ্ছি, আমার প্রার্থীতা ফিরিয়ে দেয়া হোক, না হয় শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের প্রার্থীতাও বাতিল করা হোক।
চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার পরিচালনায় প্রশ্নোত্তর পর্বে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন শান্ত, এমএ লতিফ, কাদের পলাশ, মিজান লিটন।
এসময় সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত, শরীফ চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, মির্জা জাকিরসহ বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক এবং স্থানীয় জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিকবৃন্দ।
বিএনপির নেতাকর্মীদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী গোলাম মোস্তফা বিএনপি নেতা আব্দুল কাইয়ুম, মনির খন্দকার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বয়ক ইউছুফ আলী, সদর থানা স্বেচ্ছাসেক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক খোকন মিজি, যুবদল নেতা দেওয়ান মো. জুয়েল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.