আমার সাথে পূর্ণিমার যোগাযোগ করা উচিত ছিল: শেলী মান্না

আমার সাথে পূর্ণিমার যোগাযোগ করা উচিত ছিল: শেলী মান্না
আমার সাথে পূর্ণিমার যোগাযোগ করা উচিত ছিল: শেলী মান্না

চাঁদপুর সময় রিপোট-আরিফিন শুভর সঙ্গে দুটি ছবিতে কাজ করেছেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। একটিও মুক্তি পায়নি। সম্প্রতি পূর্ণিমা তাই আক্ষেপ করে বলেন, শুভর সঙ্গে এর আগে ‘ছায়াছবি’ নামে একটা সিনেমা করেছিলাম, সেই ছবিটি আজও মুক্তি পায়নি। তারপর দুজনে আবার জুটি বেঁধেছি ‘জ্যাম’ সিনেমায়। এখন এটাও নাকি আর হবে না। শুভর সঙ্গে এটা আমার বাজে একটা অভিজ্ঞতা, হয়তো ব্যাড লাক আমাদের দুজনের। ওর সঙ্গে আমার সিনেমা ভাগ্য খুবই খারাপ।

‘জ্যাম’ ছবিটির প্রযোজনা করেছে প্রয়াত নায়ক মান্নার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কৃতাঞ্জলি। ছবিটি নিয়ে পূর্ণিমার মন্তব্যে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন কৃতাঞ্জলির কর্ণধার শেলী মান্না। তিনি গণমাধ্যমকে জানান, সিনেমাটিতে দেড় কোটি টাকার বেশি নির্মাণ ব্যয় হয়েছে। ইতোমধ্যে সম্পাদনা শেষ করেছি। সবকিছু শেষের দিকে। তাহলে কীভাবে এই সিনেমাটির কাজ শেষ হবে না!
জ্যাম নিয়ে পূর্ণিমা আরও বলেছেন, ছবিটির যে বাজেট ছিলো তা এরইমধ্যে অতিক্রম করেছে, যার কারণে প্রযোজক আর ছবিটি করতে চাচ্ছে না।

শেলী মান্না বাজেটের বিষয়ে বলেন, বাজেট ফেল করেছে সেটা সঠিক, কিন্তু দেড় কোটি টাকা খরচের সিনেমায় বাকি ২০ লাখ টাকার কাজ না করে বন্ধ করে দেব এমনটা কোন প্রযোজক করবেন? পূর্ণিমা যেটা বলেছে সেটা হয়ত না জেনেই বলেছে। মূলত শিডিউল জটিলতা, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি, সবকিছু মিলিয়ে কাজটি শেষ করতে আমাদের সময় লাগছে।

তিনি আরও বলেন, পূর্ণিমা আমার ছবিটি নিয়ে মন্তব্য করার আগে আমার সাথে যোগাযোগ করে ছবিটি নিয়ে কথা বলা উচিত ছিল। শুভর ব্যস্ততা, ঋতুপর্ণার শিডিউল শুভর সাথে না মেলার কারণে আমাদের ছবিটা আটকে যায়। তবে আমরা সিনেমাটির কাজ একদম শেষ করেছি। তবে এরমধ্যে পূর্ণিমার একটি গান ও ঋতুপর্ণার একটি দৃশ্যের কাজ হলেই সিনেমাটি শেষ হয়ে যাবে। গল্পের কিছু পরিবর্তন আর ছবির দৈর্ঘ্য বাড়ানোর কারণে আমাদের আরও ৬ থেকে ৭ দিনের কাজ বাকি আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *