আলিয়ার বিয়েতে মাত্র ২৮জন দাওয়াত পেয়েছেন

আলিয়া ভাট আর রণবীর কাপুরের বিয়ে এই মুহূর্তে বিটাউনের সবচেয়ে আলোচ্য বিষয়। সবার নজর এখন বলিউডের এই হবু দম্পতির দিকে। তাঁদের বিয়ের দিন থেকে শুরু করে কারা আমন্ত্রিত, ঠিকানা—সবকিছু ঘিরে এখনো ধোঁয়াশা। এরই মধ্যে এই বিয়ে ঘিরে বলিউড সাম্রাজ্যে উড়ে বেড়াচ্ছে আরও নতুন কিছু তথ্য।
আলোয় আলোয় ঝলমলিয়ে উঠেছে চেম্বুরের ‘আরকে স্টুডিও’, পালি হিলের ‘বাস্তু অ্যাপার্টমেন্ট’, আর ‘কৃষ্ণা রাজ বাংলো’। দুই পরিবারেই এখন চলছে জোরদার বিয়ের প্রস্তুতি। নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, বিয়েটা সম্পূর্ণ গোপন রাখার জন্য রণবীরের ‘বাস্তু অ্যাপার্টমেন্ট’ সাদা কাপড়ে মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। খবর ছিল, ১৩ থেকে ১৭ এপ্রিলের মধ্যে কোনো একদিন গাঁটছড়া বাঁধবেন রণবীর-আলিয়া। আর তাঁদের বিয়ে হবে আরকে হাউস বা বাস্তু অ্যাপার্টমেন্টে।

আলিয়ার বিয়েতে মাত্র ২৮জন দাওয়াত পেয়েছেন

কিন্তু গতকাল আলিয়ার সৎভাই রাহুল ভাট এক শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকাকে জানিয়েছেন যে ২০ এপ্রিলের মধ্যে বিয়ে হবে এই জুটির। আর মুম্বাইয়ের কোনো পাঁচ তারকা হোটেলে তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হবে। আর নিরাপত্তার কারণে রণবীর-আলিয়ার বিয়ের দিনক্ষণ থেকে ঠিকানা—সবকিছু শেষ মুহূর্তে এসে বদল করা হয়েছে।
রণবীর-আলিয়ার বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথিদের তালিকাও নাকি চূড়ান্ত হয়ে গেছে। জানা গেছে, আত্মীয়স্বজন, ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধব আর বলিউড তারকাদের নিয়ে মাত্র ২৮ জন উপস্থিত থাকবেন বিয়ের দিন।

রাহুল আরও জানিয়েছেন, বাবা মহেশ ভাটকে বিয়ের দিন দেখা যাবে পাঞ্জাবি-পায়জামায়। আর তাঁর পোশাক ডিজাইন করেছেন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায় এবং মনীশ মালহোত্রার দল। আলিয়া আর রণবীর পাঞ্জাবি রীতি অনুযায়ী বিয়ে করবেন, তা আগেই জানা গিয়েছিল। রণবীর-আলিয়া বিয়ের পর এক গ্র্যান্ড রিসিপশনের আয়োজন করবেন। রিসিপশনের ঠিকানা নিয়েও রয়েছে নানান জল্পনা–কল্পনা। কখনো শোনা যাচ্ছে, এই রিসিপশন হবে তাজমহল প্যালেসে, আবার কখনো শোনা যাচ্ছে গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে রিসিপশন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.