ইব্রাহীম জুয়েলসহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ৮ নেতা কারামুক্ত

স্টাফ রিপোর্টার

চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ৮ নেতা অবেশেষ মুক্তি পেলো গতকাল। গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার সময় চাঁদপুর জেলা কারাগার থেকে চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক হযরত আলী বেপারী, সদস্য সচীব কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েলসহ ৯ নেতাকর্মী এক এক করে বেরিয়ে আসেন। তাদেরকে হাইকোর্ট থেকে জামিন দেওয়া হয়েছে। আটকৃত ৯ জনের মধ্যে এর আগে ৩০ মে জেলা স্বেচ্ছাসেক দলের যুদ্ম আহবায়ক ইখতিয়া উদ্দিন শিশু জামিনে বের হয়ে আসেন।
হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী গতকাল ১৩ জুন সোমবার দুপুরে চাঁদপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ শামছুল ইসলামের আদালতে তাদের পক্ষের আইনজীবী মুক্তিনামা প্রদান করেন। জামিনপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক হযরত আলী, সদস্য সচিব ইব্রাহীম কাজী জুয়েল, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক সোলেমান ঢালী, যুগ্ম আহবায়ক মেরাজ চোকদার, শামসুল আলম সূর্য, মাসুদ মাঝি, খোকন ও ইয়াসিন খান।
আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডঃ আলম খান মঞ্জু জানান, এই আসামীদেরকে মহামান্য হাইকোর্ট তাদেরকে ১ বছরের জামিন প্রদান করেন। সেই অনুযায়ী আমরা মুক্তিনামা প্রদান করেছি। মুক্তিনামা চাঁদপুর জেলা কারাগারে গিয়ে পৌছলে আসামীরা জামিনে মুক্ত হন।
এসময় জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের বিপুল পরিমান নেতাকর্মী জেলখানার সামনে সমবেত হন। এছাড়া বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বিপুল পরিমান নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। কারামুক্তির পর তাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় চাঁদপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ে। সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সংবর্ধনা সভায় নেতাকর্মীরা সবাইকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন খান বাবুল, জেলা যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মানিকুর রহমান মানিক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক কামরুজ্জামান হাসানাত। জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন পাটওয়ারী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক শাসমুল আরেফিন, ইয়াকুব বিন সায়েম লিটন, অলি আহমেদ চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সিনিয় সহ-সভাপতি মেহেদি হাসান রনি, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা, মেহেদী হাসান সাকিল, পৌর বিএনপি’র সহিদ ঢালী, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মাহাবুব খান মুুন্না প্রমূখ।
উল্লেখ্য চাঁদপুর জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবসহ ৯ জনের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেয় আদালত। গত ১০ মে মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর জেলা ও দায়রা জজ এর বিচারক এস এম জিয়াউর রহমান এর আদালতে আসামীরা হাজির হলে, বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে আদালতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন পিপি অ্যাড. রণজিৎ রায় চৌধুরী এবং আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাড. কামাল উদ্দিন ও অ্যাড. এটিএম মোস্তফা কামাল।
জানা যায়, চলতি বছরের ৯ মার্চ দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশ বাদী হয়ে ৮৯ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে। মামলা নং- জিআর ১৩৫/২২, তারিখ ১১/৩/২২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *