চাঁদপুরে বিআরডিবির ঋণ গ্রহীতা ১৫ জনের মধ্যে ৭ জনই অনুপস্থিত!

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত কোভিড-১৯-এ ক্ষতিগ্রস্ত ১৫ জন পল্লী উদ্যোক্তার মাঝে ঋণ বিতরণের আয়োজন করেচাঁদপুর বিআরডিবি।কিন্তু অনুষ্ঠানে ৮ জনকে উপস্থিত করতে পেরেছেবিআরডিবি কর্তৃপক্ষ। সাতজন ছিলো অনুপস্থিত। এমনকি ওই সাতজনের ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো তথ্যও দিতে পারেনি তারা। সাতজনের বিষয়টি গোপন রাখাটা রহস্যাবৃত। তাই তাদের এই ঋণ বিতরণের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

চাঁদপুর শহরের ওয়্যারলেস এলাকায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) অফিস। এ অফিসের প্রশিক্ষণ হলরুমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত কোভিড-১৯-এ ক্ষতিগ্রস্ত পল্লী উদ্যেক্তাদের মাঝে প্রণোদনার আওতায় ঋণ বিতরণ করা হয়েছে।

গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর সোমবার সকালে বিআরডিবি প্রশিক্ষণ হলরুমে এ ঋণ বিতরণ করা হয়। ২ জন নারী ও ১৩ জন পুরুষকে ২ লাখ টাকা করে ৩০ লাখ টাকা ঋণ দেয়া হয় বলে কর্তৃপক্ষ অনুষ্ঠানেই জানায়। অথচ ১৫ জনের মধ্যে ৮ জনকে বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত করা হলেও বাকি ৭ জনকে দেখা যায়নি। এমনকি তারা কেনো আসেনি এ ব্যাপারে কোনো উত্তরও মেলেনি।

অনুষ্ঠানে একটি পিভিসিবোর্ডের মাধ্যমে ২ লাখ টাকা চেকের একটি অনুলিপি বোর্ড উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের অতিথিবৃন্দ। এদিকে অনুষ্ঠানে সাংবাদিক ছাড়া অতিথিদের আসনে ছিলেন ১০জন। আর দর্শক-শ্রোতার সারিতে ছিলেন ১৫ জন।

অবস্থা দেখে মনে হয়েছে বিআরডিবি এ যেন দায়সারাভাবে ঋণ বিতরণ করেছে। সরকার কোভিড-১৫-এ ক্ষতিগ্রস্ত হিসেবে ৩০ লাখ টাকা দিলো। অথচ কোনো প্রচারনা নেই।

বিআরডিবির এমন প্রচারবিহীন কর্মকাণ্ড নিয়ে রোববার অনুষ্ঠিত জেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভায় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়। তাছাড়া ঋণগ্রহীতা বাছাই করার অস্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়। এই অস্বচ্ছতার প্রমাণও মিলল ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠানে।

স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published.