জনগণের কল্যাণে রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছি :  মেজর অব. রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম) এমপি

 

জনগণের কল্যাণে রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছি :  মেজর অব. রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম) এমপি

শাহরাস্তি প্রতিনিধি

চাঁদপুর-৫ নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য, সাবেক সফল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মহান মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমান্ডার মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম, সাংবাদিকদের দীর্ঘ ৪ বারের এমপি হিসেবে উন্নয়নের বিষয় তুলে ধরেন। ২৪ জুলাই রবিবার বিকেলে শাহরাস্তি পৌরসভার উপলতা আলহাজ্ব আব্দুল লতিদের বাসভবনে এই বক্তব্য তুলে ধরেন। মহান মুক্তিযুদ্ধের

১নং সেক্টর কমান্ডার, সাবেক সফল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চাঁদপুর-৫ শাহরাস্তি- হাজিগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য মেজর অব: রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম নির্বাচনী এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন দীর্ঘ সময়ের মতবিনিময় সভায় মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর উত্তম ১৯৯৬ সাল থেকে চার মেয়াদে তার নির্বাচনী এলাকার শাহরাস্তি ও হাজীগঞ্জের ব্যাপক উন্নয়ন

কর্মকান্ডের সংক্ষিপ্ত চিত্র তুলে ধরেন। একই সাথে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নেরও উত্তর দেন। তিনি বলেন ১৯৯৫ সাল থেকে আমি আমার এলাকার জনগণের সাথে রয়েছি। এলাকার জনগণের কল্যাণে রাত দিন কাজ করে যাচ্ছি। আমি চাই সবাই শান্তিতে বসবাস করুক। আমার বিশ্বাস আমার এলাকায় এ পরিবেশটা বজায় রাখতে পেরেছি। আমার

 

নির্বাচনী এলাকায় কোন রাজনৈতিক হানাহানি নেই। আমি যখন প্রথম নির্বাচিত হই তখন দুই উপজেলায় ৬ কিলোমিটার রাস্তা পাকা ছিল। আর বর্তমান সাড়ে ৬শ কিলোমিটার রাস্তা পাকা হয়েছে। ডাকাতিয়া নদীর উপর শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জের অংশে ৯টি ব্রিজ নির্মাণ করেছি। প্রায় ৮শ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। ১৯৯৬ সালে আমার এলাকায় মাত্র ১৫ শতাংশ বিদ্যুৎ পেয়েছে। আর এখন শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আনা হয়েছে।

এছাড়াও ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি সড়ক নির্মাণ, ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ডাকাতিয়ার পাড়ে ওয়াকওয়ে, ফায়ার সার্ভিস স্টেশন, পৌরসভার উন্নয়নসহ অসংখ্য উন্নয়ন করা হয়েছে। ডাকাতিয়া নদীর ড্রেসিং চলছে। চাঁদপুর আধুনিক নৌ-বন্দর টেন্ডার প্রক্রিয়া আগামী মাসের মধ্যে শেষ হবে। এছাড়াও যানজট নিরশনে শাহরাস্তি-হাজিগঞ্জ বাইপাস সড়ক নির্মাণের

আবেদন প্রধানমন্ত্রীর কাছে দেওয়া হয়েছে। অচিরেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমার নির্বাচনী এলাকায় অবকাঠামো ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এবার সম- উন্নয়ন ও মানবসম্পদ উন্নয়ন

জোর দেবো। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জনগণের কল্যাণে এ পর্যন্ত কাজ করছেন বলে জানান। এ এলাকার জনগণের কল্যাণে রাতদিন কাজ করে যাচ্ছি।

আমি আমার এলাকার জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করছি। তিনি জানান, ১৫ শত কোটি টাকা কাজ হয়েছে তার হাত দিয়ে। আগামী এক বছরের মধ্যে কাঁচা রাস্তা গুলো পাকা

হবে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, আমি নিজেও একজন সাংবাদিক তাই সাংবাদিকদের সাথে আমার দির্ঘদিনের সম্পর্ক। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিআইডব্লিউটিএ নির্বাহী

প্রকৌশলী মোঃ আমজাদ হোসেন, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শামসুদ্দোহা, শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ন রশীদ, শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদের

চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুল মান্নান, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল মজুমদার, চাঁদপুর

 

প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত ,শহীদ পাটোয়ারী, মোঃ শরীফ চৌধুরী,ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী
সিঃ সহ-সভাপতি রহিম বাদশা, সহ-সভাপতি এ এইচ এম আহসান উল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলম পলাশ একাত্তর কন্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক জিয়াউর রহমান বেলাল, সময়

টিভির স্টাফ রিপোর্টার ফারুক আহমেদ,সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান সুমন, এম আর ইসলাম বাবু উপজেলা আওয়ামীলীগের (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল মজুমদার,

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া, পৌর আওয়ামী লীগের সিঃ যুগ আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জেড

এম আনোয়ার, যুবলীগের আহ্বায়ক আহসান মঞ্জরুল ইসলাম জুয়েল,প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ুন কবির ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ রানা প্রমুখসহ চাঁদপুর -শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ উপজেলার প্রিন্ট ইলেকট্রিক মিডিয়ায় গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.