এ আর রাহমানের নামে কানাডার একটি শহরের রাস্তা

অস্কারজয়ী ভারতীয় সুরকার ও সংগীত পরিচালক এ আর রাহমানকে অন্য রকম সম্মান জানাল কানাডা সরকার। দেশটির গ্রেটার টরন্টো এলাকার মারখাম শহরের একটি সড়কের নামকরণ করা হয়েছে তাঁর নামে। কানাডার মারখাম সিটি মেয়র ফ্র্যাঙ্ক স্কারপিটির প্রতি তাই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ভারতের বরেণ্য এই সুরকার ও সংগীত পরিচালক।

এ-আর-রাহমানের-নামে-কানাডার-একটি-শহরের-রাস্তা

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশও করেছেন এ আর রাহমান। নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি চিঠিও পোস্ট করে আনন্দ ভাগাভাগি করেছেন ভারতীয় এই সুরকার ও সংগীত পরিচালক। তিনি লিখেছেন, ‘আমার নামে যে শহরের সড়ক হয়েছে, সেই নাম তো আসলে আমার নাম নয়। এই ‘মার্সিফুল’ নামের হচ্ছে দয়াময়। এই নামের যে অর্থ, সেই অর্থ অনুযায়ী এই শহরের মানুষের জীবনে যেন দয়া ও শান্তি আসে।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে এ আর রাহমান লিখেছেন, ‘কল্পনাতীত। মারখাম শহরের মেয়র, কাউন্সিলর ও কানাডার সাধারণ মানুষের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। একজন শিল্পী হিসেবে এমন একটি পদক্ষেপ আমার দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দিল। এখনই ক্লান্ত না হয়ে, অবসর না নিয়ে আরও কাজ করতে হবে। যদি কখনো ক্লান্ত হয়েও পড়ি, তবু মনে রাখব, আমার আরও অনেক কিছু করার আছে। আরও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে।’

তবে এই প্রথম নয়। এর আগে ২০১৩ সালে কানাডার অন্টারিও প্রদেশে একটি সড়কের নামকরণ করা হয় তাঁর নামে। সেটির নাম আল্লাহ রাখা রাহমান স্ট্রিট। ভারতীয় এই সংগীতের পরবর্তী কাজ হবে চলচ্চিত্র নির্মাতা মণি রত্নমের ‘পনিয়িন সেলভান’, যা এ বছরের সেপ্টেম্বরে মুক্তি পাবে। ধারণ করা হচ্ছে ২০২২ সালের সবচেয়ে প্রত্যাশিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে একটি। তামিল এই ছবিতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। ছবিটি হিন্দি, কন্নড়, তেলেগু ও মালয়ালম ভাষায় ডাবিং করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ২০ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। ১৯৯০ সালে ‘রোজা’ সিনেমার সংগীত পরিচালক হিসেবে পথচলা শুরু এ আর রাহমানের। এরপর একের পর এক হিট গান উপহার দিয়েছেন তিনি। এবার তাঁর প্রাপ্তির ঝুলিতে নতুন সংযোজন এই সড়কের নামকরণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.