কচুয়ায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় সিএনজি খালে : আহত ৫

চাঁদপুরের কচুয়ায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে হাজীগঞ্জ-কচুয়া-গৌরিপুর সড়কের কড়ইয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের মোস্তাফা কামাল (৫২), বিল্লাল হোসেন (৪২), সুফিয়ান (২১), সামাদ (৪২), দেলোয়ার হোসেন (৭২)। গুরুতর আহত সুফিয়ান, সামাদ, দেলোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সিএনজি চালক বিল্লাল ও যাত্রী মোস্তাফা কামাল কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।
আহতদের সূত্রে জানা যায়, আহত পাচঁজনই মাঝিগাছা গ্রামের বাসিন্দা। তাদের পাঁচজনেই ব্যক্তিগত কাজেই পার্শ্ববর্তী হাজীগঞ্জ উপজেলায় যান। কাজ শেষে অটোরিকশাযোগে বাড়ি ফেরার পথে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা লাগে। এতে যাত্রীসহ অটোরিকশা পার্শ্ববর্তী খালে পড়ে যায়।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমরা দ্রুত পৌছাই। কাভার্ডভ্যানটি আটকের চেষ্টা চালাচ্ছি। সিএনজিটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

চার মাস আগে একই জায়গায় বিআরটিসি ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন কলেজ শিক্ষার্থীর প্রাণ ঝরে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার পরও সড়ক ও জনপদ বিভাগ দুর্ঘটনার জায়গায় স্পিড ব্রেকার বা কোনো সংকেত চিহ্ন ব্যবহার করেনি। যা স্থাপনের জন্য এলাকাবাসী ও সচেতন মহল দাবি করে আসছে। দুর্ঘটনা প্রতিরোধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোতাছেম বিল্লাহ বলেন, সড়ক ও জনপদের সঙ্গে যোগাযোগ করে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে স্পিড ব্রেকার বা সংকেত চিহ্ন ব্যবহার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি সিএনজি চালকদের সঙ্গে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সতর্কীকরণ বৈঠক করা হবে।

কচুয়া প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.