কচুয়ায় প্রবাসীর ভিসা টিকিট ও অর্থ ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

কচুয়া প্রতিনিধি চাঁদপুরের কচুয়ার প্রসন্নকাপ গ্রামে নারী সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বাঁধা দেয়ায় এক প্রবাসীকে মারধর করে তার ভিসা, টিকেট, পাসর্পোট ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার (২৭ মে) বিকালে ইলিয়াস হোসেন প্রবাসে বাহারাইন যাওয়ার উদ্দেশে রওয়ানা দিলে বিবাদীরা সুরমা বাস গতিরোধ করে তার ভিসা, টিকেট, পাসর্পোট ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় বলে অভিযোগ উঠে। প্রসন্নকাপ গ্রামের লোকমান হোসেন, পারভীন বেগম ও তাদের ছেলে হৃদয় হোসেন গংদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভিসা, পাসর্পোট ও নগদ টাকা ফেরত পাওয়ার দাবিতে এবং ন্যয় বিচার চেয়ে প্রবাসী ইলিয়াস হোসেন বাবা মোঃ আবুল বাসার বাদী হয়ে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
বাদীর অভিযোগ ও স্থাানীয় এলাকা সূত্রে জানা গেছে, প্রবাসী মোঃ ইলিয়াস হোসেন প্রায় ৬ মাস পূর্বে ছুটিতে নিজ গ্রামের বাড়ীতে আসেন। এরই মাঝে একই গ্রামের হানিফ মিয়ার মেয়ের সাথে লোকমান হোসেনের পুত্র মোঃ ফরহাদ হোসেনর প্রেম সংক্রান্ত বিরোধ ঘটে। পরে বিবাদীরা ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাদীর ভাতিজা মাসুদ ও তার স্ত্রী জরনা বেগম কে সম্প্রতি মারধরসহ নানান ভাবে হুমকী-ধমকী ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এতে বাহারাইন প্রবাসী ইলিয়াস হোসেন বাঁধা দিলে তার সাথেও বিভিন্ন বিরোধ সৃষ্টি হয়।
বাদী পরিবার জানান, ইলিয়াস হোসেন গত শুক্রবার বাহারাইন যাওয়ার উদ্দেশ্যে সুরমা বাসে উঠে ঢাকায় রওয়ানা দিলে বিবাদীরা বায়েক এলাকায় পৌছে তাকে গাড়ী থেকে নামিয়ে মারধর করে সাথে থাকা তার ভিসা, পাসর্পোট ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ফলে ইলিয়াস হোসেন পাসর্পোট, টিকেট না থাকায় বর্তমানে বাহারাইন যেতে পারছেন না এবং মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থা হচ্ছেন। বিষয়টি সমাধানে প্রশাসনসহ স্থাানীয় এলাকা বাসীর সহযোগীতা চেয়েছেন বাদীর পরিবার। এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ওসি মোঃ মহিউদ্দিন জানান, প্রবাসীর ভিসা, পাসর্পোট ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাা নেয়া হবে। এদিকে অভিযোক্ত লোকমান হোসেন গংদের বক্তব্যে জানতে তার মোবাইলে বারবার চেষ্টা করেও বক্তব্য নেয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *