করোনায় আক্রান্ত অন্তঃসত্ত্বা ‘হ্যারি পটার’ তারকা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ‘হ্যারি পটার’ সিরিজের তারকা অভিনেত্রী জেসি কেভ। তিনি অন্তঃসত্ত্বা। হাসপাতাল থেকে ইনস্টাগ্রামে একটি সেলফি পোস্ট করে নিজের অবস্থার কথা বন্ধু ও অনুসারীদের জানিয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।

তিন সন্তানের মা জেসি একটি সেলফি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আবার জরুরি অবস্থা…গর্ভধারণের তৃতীয় স্তরে এসে করোনায় আক্রান্ত হয় কেউ? মনে হচ্ছে কয়েক টন ইট এসে মাথায় পড়েছে।’ পোস্ট পড়ে জেসির বিখ্যাত বন্ধুরা জানিয়েছেন, প্রয়োজনে যেন তাঁদের ডাকেন। ‘হ্যারি পটার’–এর শেষ তিন কিস্তিতে জেসি অভিনয় করেছেন ল্যাভেন্ডার ব্রাউন চরিত্রে। তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ছবির সিমেস ফিনেগেন চরিত্রের ডেভন মরি লিখেছেন, ‘জেসি, তোমার অবস্থা দেখে খুব খারাপ লাগছে। তোমার দ্রুত আরোগ্য কামনা করি।’

‘বাফারিং’ সিরিজের অন্যতম অভিনেত্রী জেসি গত বছরের ডিসেম্বর মাসে জানিয়েছিলেন যে তিনি ও তাঁর সঙ্গী আলফি ব্রাউন চতুর্থ সন্তানপ্রত্যাশী। সে সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি লিখেছিলেন, ‘নতুন বাচ্চাটাকে আর লুকিয়ে রাখা গেল না।’ এর বছরখানেক আগে লেখক আলফি ব্রাউন জানিয়েছিলেন তাঁদের ১৭ মাসের ছেলে করোনায় আক্রান্ত। ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে জেসি ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ‘হাসপাতালের কক্ষে আইসোলেশনে বসে লকডাউনের খবর দেখছি। হতভাগা বাচ্চাটা কোভিড পজিটিভ। যদিও সে ভালো আছে এবং সুস্থ হয়ে উঠছে। কিন্তু সতর্ক থাকতে হচ্ছে। ভাইরাসের নতুন এ ধরন খুব শক্তিশালী আর সংক্রামক। সত্যিই এ রকম একটা পরিস্থিতি নিয়ে নতুন বছর শুরু করতে চাইনি। ওর দুর্বিষহ জন্মের পর এত দ্রুত আবার হাসাপাতালে আসতে হবে ভাবিনি। যদিও আমি নার্স ও ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে ভালো আছি।’

করোনায় আক্রান্ত অন্তঃসত্ত্বা ‘হ্যারি পটার’ তারকা

জেসির তৃতীয় ছেলে টেনেসির জন্ম ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে। জন্মের প্রায় এক মাস পর হাসপাতাল থেকে তাকে বাড়িতে নেওয়া হয়েছিল। জেসির বড় সন্তান ডনির বয়স ছয় বছর, মার্গটের চার বছর। জেসি ও আলফিও গত বছর করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। আট বছর প্রেম করার পর তাঁরা ঘর বেঁধেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.