চাঁদপুর কোড়ালিয়ায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মা-মেয়েসহ আহত ৫

চাঁদপুর শহরের কোড়ালিয়া এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মা-মেয়েসহ ৫ জন আহত হয়ে হয়েছে। ১১ আগস্ট বুধবার বিকেল সাড়ে ৩ টায় শহরের কোড়ালিয়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আহতরা হলেন ওই এলাকার হারুন ছৈয়াল (৪৫) স্ত্রী মাসুমা বেগম (৩৯), মেয়ে বুলবুলি (১৭), ছেলে তাহসিন (১৪) ও বাবুল দেওয়ানের ছেলে রাজু (১১)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত কিশোর গ্যাংদের বিরুদ্ধে মাসুমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। আহত মাসুমা বেগম জানান, দীর্ঘদিন পূর্বে তার ছেলে তাহসিন নদীতে গোসল করতে গেলে একই এলাকার ইসমাইল খানের ছেলে ফারুক খান এবং তার সহপাঠী ফরহাদসহ অজ্ঞাত আরো বেশ কয়েকজন মিলে মাদক সেবনের পরামর্শ দেন। কিন্তু তার ছেলে ওই কিশোরদের সাথে মাদক সেবন করতে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মাঝে ঝগড়াঝাঁটি ও মারধরের ঘটনা ঘটে।

তারই সূত্রধরে ঘটনার দিন বিকেলে মাসুমা বেগমের ছেলে তাহসিন রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় কোড়ালিয়া নতুন রাস্তা নামক স্থানে ইসমাইল খানের ছেলে ফারুক খান ফরহাদসহ অজ্ঞাত আরো ১০/১২ জন মিলে তার পথ আটকে রাখে। এসব কিশোর গ্যাংরা তাকে মারধর করবে জেনে সে কোনমতে ভয়ে সেখান থেকে দৌড়ে বাড়িতে চলে যান। মাসুমা বেগমের অভিযোগ, তার ছেলে তাহসিন বাড়িতে পালিয়ে গেলে ওই কিশোর গ্যাংরা তার পিছনে পিছনে দৌড়ে গিয়ে তার স্বামীকে সামনে পেয়ে মারতে শুরু করেন। পরে তার ডাক চিৎকারে তিনি এবং তার নাবালিকা মেয়ে বুলবুলিসহ অন্যান্যরা তাকে বাঁচাতে গেলে কিশোর গ্যাংরা তাদের ওপরও অতর্কিত হামলা চালায়। পরে বাড়ির অন্যান্য লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

স্টাফ রির্পোটার, ১৩ আগস্ট, ২০২১;

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *