মতলব দক্ষিণে খাঁদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহণ চলছে : ভোটারদের বিপুল উপস্থিতি

 

মতলব দক্ষিণে খাঁদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ভোট

এসআর শাহ আলম

চাঁদপুর জেলার মতলব দক্ষিণ উপজেলায় জমজমাট প্রচার প্রচারণা শেষ করে আজ ৩ নং খাদের গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ভোট যুদ্ধের লড়াই চলছে । সকাল থেকেই দেখা গেছে ভোটারদের  উপস্থিতি।

কে হচ্ছেন ইউনিয়ন বাসির জনসেবক। সেটাই নির্ধারণ করবে ভোটাররা, আর এই ভোট যুদ্ধের লড়াই য়ে তিন জন চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী রয়েছে, যার মধ্যে আওয়ামী লীগের দলীয় নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছেন সফল চেয়ারম্যান সৈয়দ মঞ্জুর

হোসেন রিপন মীর , যার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও সফল দুই বারের মেম্বার মোঃ ইকবাল হোসেন

হাওলাদার সতন্ত্র পদ প্রার্থী ঘোড়া মার্কা নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন , ও চরমনাইর হাত পাখা প্রতিক নিয়ে চেয়ারম্যান

পদে নির্বাচন করছেন মোঃ শরিফুর রহমান সূজন।

যার যার অবস্হান থেকে বিগত কয়েক দিন জোরালো ভাবে প্রচার প্রচারনা করেছেন নিজেদের বিজয় নিশ্চিত করতে। সকলের

কাছে তাদের লক্ষ নিশানা ভোটারদের ভোটের মাধ্যমে তারা বিজয়ী হবেন।

এদিকে ১৭ হাজার ৮শ ১৪ জন ভোটার দিয়ে ইউনিয়ন টি গঠিত হয়ে মোট ৯ টি ওয়ার্ডে ভাগ করে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীদের

সাথে সংরক্ষিত ৬ জন মহিলা মেম্বার সহ ২৯ জন ওয়য়ার্ড মেম্বার সহ মোট ৩৮ জন পদ প্রার্থী ভোটের লড়াই করবেন, সর্বশেষ ১

 

জন চেয়ারম্যান ৩ জন সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ও ৯ জন পুরুষ মেম্বার সহ মোট ১৩ জন বিজয় লাভ করে ইউনিয়ন পরিষদ গরে তুবেন।

এদিকে আজকের ভোট যুদ্ধের লড়াই কে ঘিরে দলীয় নৌকা প্রতিক এর প্রার্থী রিপন মীর বলেন, বর্তমান সরকার জনগনের

 

অধিকার দিয়েছে, তাই ভোটাররা তাদের নিজ নিজ পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয় করবে, আর আমি আশাকরি ইউনিয়ন

বাসি নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয় করবে , নৌকার বিজয় মানে আমার দায়িত্ব নেবার পালা, আমি পূর্বে জনগনের ভোটে

বিজয় হয়েছি এবারও বিজয় হবো, তবে অবাধদ সুষ্ঠ নিরপেক্ষ ভোটের আয়োজন করা হয়েছে। তাই আমি ইউনিয়ন বাসির কাছে

 

 

 

অনুরোধ করছি আপনারা আজ ঘরে বসে থাকবেন না, সকল অপশক্তি কে পিছিয়ে ফেলে স্ব স্ব কেন্দ্রে এসে ভোট দিয়ে নৌকার

 

বিজয় নিশ্চিত করুন।

অপর দিকে সতন্ত্র চেয়াারম্যা পদ প্রার্থী ঘোড়া মার্কার ইকবাল বলেন আমি ইতি পূর্বে নির্বাচন কমিশন বরাবর লিখিত অভিযোগ

করেছি, কয়েকটি ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রের বিষয়, যেখানে পযাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্হা করতে হবে। ইউনিয়ন বাসির ইচ্ছায় আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছি, জনগন আমাকে ণেট দিবে এবং জনগনের চাওয়া পাওয়া আমাকে তারা তাদের প্রতিনিধি করতে বিপুল

 

 

 

ভোটে বিজয় করবে। তাই আমি মনে করি শান্তিপূর্ণ অবাদ সুষ্ঠ নির্বাচন হলে আমিই বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ। এছারা ইসলামী

 

আন্দোলন এর হাত পাখার চেয়ারম্যান প্রার্থী সূজন তিনি বিজয় হবার আসা ব্যক্ত করেন। এছারা প্রতিটি ওয়ার্ড সদস্যরাও

নিজেদের মার্কার বিজয় নিয়ে বিভুর হয়ে আছে, চলতি বছর ইবি এম এ ভোট গ্রহন হবে, যেখানে ভোট কারচুপি করারা কোন

 

সুযোগ নেই বলে অনেকে বলেন। তবে কেউ কেউ বলেন, বয়স্ক ভোটাররা কিছু বেগ পেতে পারে ইবি এমে ভোট দিতে গিয়ে, আর

তাদের বেগের কারনে সময় বেশি লাগতে পারে। এ বিয়ষ নির্বাচন কমিশন বলেন, গত দুই দিন ইবি এম ভোট গ্রহন কেন্দ্র গুলিতে

 

শেখানো হয়েছি, আশা করি জনগন সুন্দর ভাবে ভোট প্রধান করতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.