চাঁদপুরের মার্কেটগুলোতে দিনভর কেনাকাটার ধুম

স্টাফ রিপোর্টার পরিবার ও স্বজনদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন চাঁদপুরের মানুষ। মানুষের স্রোত দেখা যাচ্ছে বাস, ট্রেন, লঞ্চ সবখানেই। এ পরিস্থিতিতেও চাঁদপুরের বিভিন্ন মার্কেটে ঈদকেন্দ্রিক জমজমাট বিক্রি চলছে। বিশেষ করে ইফতারের পর মার্কেটগুলোতে নতুন পোশাকের পাশাপাশি জুতা ও জুয়েলারি পণ্য বিক্রি ধুম পড়েছে।

শুক্রবার ২৯ এপ্রিল চাঁদপুর শহরের সবচেয়ে ব্যস্ততম মার্কেট হকার্স মার্কেটে মানুষের উপচেপড়া ভীড় লক্ষ করা যায়। এর মধ্যে নারী ও শিশুদের সংখ্যাই বেশী। হকার্স মার্কেটে সব ধরনের জামা কাপড়ের জন্য খ্যাত। এখানে প্রায় সব ধরনের মানুষই কেনাকাটা করে থাকেন। বিশেষ করে নিম্ন ও মধ্য বিত্তদের পছন্দের প্রধান মার্কেট হলো এই চাঁদপুর হকার্স মার্কেট।
এছাড়া চাঁদপুরের পালের বাজার থেকে শুরু করে কালী বাড়ী পর্যন্ত মরহুম মিজানুর রহমান সড়কের দুপাশের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের আনাগোড়া বেশ লক্ষ্যনীয়। এই সড়কের বেশীর ভাগই জুতার দোকান। বাটা, এপেক্স, সহ দেশী বিদেশী সব ধরনের ব্রান্ডের জুতা বেচাকেনা হয় এখানে।
এছাড়া শহরের হাকিম প্লাজা, মালঞ্চ, পুরবি মার্কেট, মীর শপিং এবং বাস স্ট্যান্ডের ফয়সাল শপিং এর দোকানীদেরকেও ব্যস্ত সময় পার করতে দেখা যাচ্ছে। বছরের প্রথম ঈদ হিসেবে মানুষের কেনাকাটি প্রতিদিনই বাড়ছে বলে জানান দোকানদাররা।
এদিকে ক্রেতারা বলছে এবার সব ধরনের জিনিস পত্রের দামনই আগের তুলনায় অনেক বেশী।
চাঁদপুর সদর উপজেলার হানার চর ইউনিয়ের বাসিন্দা নুরুন নবি জানান, জামা কাপড় কেনা এখন খুব কষ্টকর হয়ে পড়েছে। সব ধরনের জিনিষ পত্রের দামনই বেশী । তবুও কিনতে হচ্ছে। ছেলে মেয়েদের আবদার রক্ষা করা লাগে তাই দাম যতই হোক কিনতে হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.