চাঁদপুরে টিকা গ্রহণ সাড়ে ৩৫ লাখ : বুস্টার ডোজ সাড়ে ৩৯ হাজার

আবদুল গনি কোভিড-১৯ মহামারির কারণে চাঁদপুরে ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ থেকে টিকা গ্রহণ কার্যক্রম শুরু হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ও চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় জনগুরুত্বপূর্ণ এ কার্যক্রমটি সরকারি নির্দেশ মতো পরিচালিত হয়ে আসছে। সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুরে টিকা রেজিস্ট্রেশন ১৪ লাখ ৩১ হাজার জন মানুষের বিপরীতে মোট টিকা গ্রহণ সব ডোজ মিলে ৯ মার্চ পর্যন্ত ৩৫ লাখ ১ হাজার ৪৮৪ জন। শুরু থেকেই চাঁদপুরে টিকা রেজিস্ট্রেশনের সংখ্যা হচ্ছে টিকা রেজিস্ট্রেশন ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৭৬৫ জন। প্রথম ডোজ গ্রহণকারীরে সংখ্যা ১০ লাখ ৬ হাজার ৫শ ৫৪ জন এবং ২য় ডোজ গ্রহণকারীর সংখ্যা ৯ লাখ ৫৬ হাজার ৬শ ৮৬ জন। ১০ মার্চ চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সূত্রে দুপুরে এ তথ্য জানা গেছে ।

এ ছাড়াও ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ৪ লাখ ১৪ হাজার ৭৩৭ জন। বুস্টার বা মর্ডানার টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৩৯ হাজার ৫শ ৭৫ জন। টিকাগ্রহণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে বলে চাঁদপুর সিভিল সার্জন সূত্রে জানা গেছে।

ছাত্র-ছাত্রীদের যাদের বয়স ১২ থেকে ১৭ বছর হয়েছে কেবলমাত্র ঐসব ছাত্র-ছাত্রীগণ টিকার আওতায় আসবে বলে চাঁদপুর জেলা শিক্ষা অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষা পরিদর্শক মো.আজিজুর রহমান জানিয়েছিলেন ।এদিকে চাঁদপুরে গণ টিকার তথ্যসহ এ পর্যন্ত ৬৯ দশমিক .৫ ভাগ নর-নারীকে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। জেলা-উপজেলায় জেলা-উপজেলায় গণ টিকার দিন প্রয়োগ ২ লাখ ৫ হাজার জন নর-নারীকে বা ১৮ বছর বয়সের ওপরে সকলকে এটি কার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।চাঁদপুরের ২৬ ফেব্রুয়ারি গণটিকার লক্ষমাত্রা ছিল ৯১ হাজার ৮শ । অথচ ঐদিন ৩০১টি কেন্দ্রের এর মাধ্যমে ২ লাখ ৫ হাজার জনকে আওতায় আনা হয়েছে। যার ২০০ % এর বেশি । বর্তমানে আরো ২০-২২ হাজার প্রয়োগ হলেই ৭০ ভাগে উন্নীত হবে।চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালযয়ের মেডিকেল অফিসার ডা.ইছারুহুল্লাহ এ তথ্য জানান। তিনি বলেন,‘ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বেঁধে দেয়া একটি এলাকার মোট জনসংখ্যার ৭০% টিকা প্রয়োগে আসলে বুঝা যাবে ঐ এলাকায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। সেক্ষেত্রে চাঁদপুরে মোট অর্জিত হয়েছে ৬৯ % ।

আর ২০-২২ হাজার মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারলেই চাঁদপুর জেলা ৭০ ভাগে পেীছে যাবে। তুলনামূলকভাবে চাঁদপুরের টিকা প্রয়োগের অবস্থান খুব ভালো । স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকা প্রয়োগে খুবই সন্কোষজনক পর্যায়ে চাঁদপুর জেলা বলে তিনি মন্তব্য করেন। জেলার বিশেষ বিশেষ এলাকা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও কেন্দ্রে সোমবার টিকা প্রদান করা হয়েছে বলে ঐ মেডিকেল কর্মকর্তা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.