চাঁদপুরে মাছ পাচারকালে ৩ হাজার কেজি জাটকা জব্দ

চাঁদপুরে মাছ পাচারকালে ৩ হাজার কেজি জাটকা জব্দ
চাঁদপুরে মাছ পাচারকালে ৩ হাজার কেজি জাটকা জব্দ

চাঁদপুর সময় রিপোট- চাঁদপুরে মাছ পাচারকালে ৩ হাজার কেজি জাটকা জব্দ করেছে হরিনা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ।
রবিবার রাত ৩ টায় সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের বহরিয়া বাজার নদীর পাড়ে হরিনা নৌ পুলিশের ইনচার্জ এস আই নাসিম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে প্লাস্টিক ব্যারেল বোঝাই মাছগুলো জব্দ করেন।
এ সময় নৌ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামানের নির্দেশে নৌ থানা পুলিশের অন্যান্য সদস্যরা স্পিড বোর্ড নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তাদের সাথে চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফরিদা ইলিয়াস ঘটনাস্থলে গিয়ে সার্বিক সহযোগিতা করে জব্দকৃত জাটকা মাছ গুলো উদ্ধার করে হরিনা নৌ-ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।
সোমবার সকালে মৎস্য কর্মকর্তার উপস্থিতিতে জব্দকৃত মাছগুলো স্থানীয় এতিমখানা ও গরিবদের মাঝে বিলিয়ে দেওয়া হয়েছে।
চাঁদপুরে নৌ পুলিশ এই প্রথম জাটক মাছের বড় চালান জব্দ করতে সক্ষম হয়েছে। চরাঅঞ্চল থেকে বহিরাগত জেলেরা মাছগুলো নিধন করে বহরিয়া ঘাট দিয়ে উঠিয়ে পাচার করার সময় নৌ-পুলিশ তা জব্দ করে।
বহুরিয়া মেঘনা নদীর পাড়ে অভিযান চলাকালীন সময় মোঃ বেলায়েত ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হেলাল উপস্থিত থেকে মাছগুলো জব্দ করে নিয়ে আসে।
নৌ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান, অভয়াশ্রম চলাকালীন সময়ে আইন অমান্য করে মেঘনা নদীতে জাটকা মাছ ধরে পাচার করার সময় তিন হাজার কেজি জাটকা জব্দ করা হয়।
জাটকা মাছ পাচারের সময় নৌ পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ঝুঁকি নিয়ে নদীর পাড় থেকে মাসগুলোর জব্দ করে নিয়ে আসে।
এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
জাটকা নিধন বন্ধে আমাদের নৌ পুলিশ বদ্ধপরিকর। এর সাথে জড়িতদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। চাঁদপুর নৌ সীমানায় মেঘনা নদীতে পুলিশের টহল অভিযান দিনরাত অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.