চাঁদপুর পরিকল্পনা মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্য সেবা কর্মীদের মানববন্ধন

পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত (চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ) দের চাকুরী স্থায়ীকরন এর দাবিতে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ২৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সম্মুখে চাঁদপুর জেলা পিপিভি এসোসিয়েশনের আয়োজনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন এর পূর্বে পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত কর্মীরা চাকুরী স্থায়ীকরণের দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।স্মারকলিপি প্রদানের পূর্বে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন পিপিভি এসোসিয়েশন (চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ) চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি তামান্না আক্তার। সচাঁদপুর জেলা পিপিভি এসোসিয়েশনের (পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মী) লিখিত স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়,চাঁদপুর জেলার চাঁদপুর সদর উপজেলাধীন পরিবার পরিকল্পনা “পরিবারপরিকল্পনা এবং মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্যসেবায় নিয়ােজিত চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ” নবায়ন স্বাপেক্ষে “ কাজ নাই ভাত নাই” ভিত্তিতে চাঁদপুর সদর উপজেলা, ফরিদগঞ্জ ও হাজীগঞ্জ উপজেলা ইউনিয়ন, ওয়ার্ড/ইউনিটের আওতাভূক্ত শর্ত সাপেক্ষে ০৮-০৩-২০১৮ খ্রিঃ তারিখে এবং বিভিন্ন ধাপে পর্যায়ক্রমে নিয়ােগ প্রদান করা হয়। আমরা পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু, প্রজনন স্বাস্থ্য সেবায় চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ” পদে নিয়ােগ প্রাপ্ত হয়ে দীর্ঘ প্রায় ০৪ বছর খুব দক্ষতার সহিত কাজকরে আসছি। আমরা গ্রামীণ সমাজে নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হয়ে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে আসছি। নবজাতক শিশু সেবা, স্বাস্থ্য সেবা, গর্ভবতী মায়েদের সেবা ও নরমাল ডেলিভারী, কিশাের-কিশােরী সেবা, নবদম্পতি সেবা, পরিবার পরিকল্পনা রােধকল্পে।

বাস্তবায়ন ও মৃত্যু তালিকা প্রনয়ণ এবং বিভিন্ন মাঠ পর্যায়ের সেবা আমরা অত্যন্ত দক্ষতার সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছি। সারা পৃথিবীব্যাপী মরনব্যাধি কোভিড-১৯ এর দূর্যোগকালীন সময় আমরা আমাদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিদেশফেরত প্রবাসীদের তালিকা সংগ্রহ করে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করি। উক্ত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে করােনাকালীন সময়ে অনেক চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ করােনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সম্মুখীন হয়েছে। এছাড়াও আমরা শিশুদের হামরুবেলার টিকা ও করােনার ভ্যাকসিন প্রদানে সর্বাত্বক সহযােগিতা করেছি। উক্ত পদে আমরা যারা চাকুরী করে আসছি সবাই সুশিক্ষিতা, অনেকেই বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা এবং আমাদের অনেকেরই চাকুরীর বয়স অতিবাহিত হয়ে গেছে। বর্তমানে এই চাকুরী আমাদের সন্তান-সন্ততিদের নিয়ে বাঁচার একমাত্র অবলম্বন কিন্তু এতসব করার পরও আমাদের কাজের মূল্যায়ন
কারাে কাছে পাইনি।

কিন্তু আমাদের উক্ত পদে চাকুরীর দায়িত্ব পালন করার অবস্থায় যে পারিশ্রমিক দেওয়া হয়, তাতে আমরা অনেক কষ্টে দিনাতিপাত করছি। একাধিকবার বেতন বৃদ্ধির আশ্বাস প্রদান করেও তা বাস্তবে রুপলাভ করেনি। তাই আমাদের কষ্ট লাঘব করার উদ্দেশ্যে চাকুরী স্থায়ীকরনের লক্ষ্যে মানবতার মা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষনকল্পে আপনার মাধ্যমে স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিব মহােদয়ের দৃষ্টিগােচর করছি।

অতএব সারা পৃথিবীময় কোভিড-১৯ এর কথা বিবেচনা করে আমাদের পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশু প্রজনন স্বাস্থ্য সেবায় নিয়ােজিত চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ চাকুরী স্থায়ীকরনের আশু প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সদয় দৃষ্টি কামনা করছি। পিপিভি এসোসিয়েশন (চধরফ চববৎ ঠড়ষঁহঃববৎ) চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আসমা আক্তার এর পরিচালনায় বিভিন্ন উপজেলার স্বাস্থ্যকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।মানববন্ধনে স্বাস্থ্যকর্মীরা বলেন, আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনাকালীন সময় ফিল্ড পর্যায়ে কাজ করেছি। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গর্ভবতী মায়েদের সেবা দিয়েছি। এই চাকরি আমাদের ফ্যামিলি চালানোর একমাত্র সম্বল। জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সরকারের কাছে আমরা দাবি জানাই আমাদের সংসার ও আমাদেরকে বাঁচাতে এই চাকরিটি স্থায়ী করা হোক।

স্টাফ রির্পোটার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *