চাঁদপুর মেঘনা নদীতে সিমেন্ট বোঝাই ট্রলার ডুবি

স্টাফ রিপোটার: কালবৈশাখী ঘড়ের কবলে পড়ে চাঁদপুর বড়স্টেশন মোলহেডের মেঘনা নদীতে সিমেন্ট বোঝাই ডুবে গেছে। বুধবার ২০ এপ্রিল সকালে এই ঘটনা ঘটে।
পাশ্ববর্তী রায়পুর উপজেলার মেসার্স হাফিজ স্টোরের পরিচালক জহিরুল ইসলাম জানান, মুন্সিগঞ্জ জেলার মোক্তারপুর থেকে প্রিমিয়ার সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর ৩১০০ ব্যাগ সিমেন্ট এমভি এমডি ইশরাত পরিবহন নামের ট্রলারে নদীপথে আসায় সময় বুধবার ভোরে চাঁদপুর বড়স্টেশন এলাকার মেঘনা নদীর মোলহেড এলাকায় কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে। এতে সিমেনট বোঝাই ট্রলারটি ডুবে যায়। এতে প্রায় প্রায় ১৬ লক্ষ ৪৩ হাজার সিমেন্ট ডুবে যায়। এ ব্যাপারে তিনি চাঁদপুর মডেল থানায় জিডি করেছেন।
কালবৈশাখি ঝড়ের কবলে পড়ে চাঁদপুরের মেঘনায় সিমেন্টবোঝাই ইশরাক নামে একটি ট্রলার ডুবে গেছে। বুধবার (২০ এপ্রিল) দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
ট্রলারের মাঝি মোজাম্মেল হোসেন জানান, মুন্সীগঞ্জের মোক্তারপুরে প্রিমিয়ার কোম্পানির কারখানা থেকে ৩১০০ বস্তা সিমেন্ট নিয়ে চাঁদপুরের বাগড়াবাজার যাচ্ছিল ট্রলারটি।
ট্রলারটি মেঘনা নদীর বড়স্টেশন এলাকায় পৌঁছলে তা ঝড়ের কবলে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে ট্রলারটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর বাজারের মেসার্স হাফিজ স্টোর নামে একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান প্রিমিয়ার সিমেন্ট কারখানা থেকে এসব সিমেন্ট ক্রয় করে। পরে সেটি ট্রলারে চাঁদপুরের বাগড়াবাজার নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।
প্রতিষ্ঠানের মালিক জহিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় তার প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ টাকা জলে গেছে। এ ছাড়া ডুবে যাওয়া ট্রলার তো আছেই।
এদিকে, দুর্ঘটনার পর স্থানীয় ডুবুরি দিয়ে ট্রলারটি চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে এটি পানির নিচ থেকে তুলে নিয়ে আসা অসম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে এতে সম্পূর্ণ সিমেন্ট বিনষ্ট হয়েগেছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।
ব্যবসায়ীদের এমন ক্ষতি কত দিনে কাটিয়ে উঠতে পারবে তা তারা বুঝতে পারছে না। ঈদকে সামনে রেখে এমন দুর্ঘনটনা অত্যন্ত দুঃখজনক।
ভবিষ্যতে এমন দুর্ঘটনা এড়াতে আরো সতর্ক হতে হবে সবাইকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.