চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধে হঠাৎ ধস

চাঁদপুর লঞ্চঘাট এলাকায় শহর রক্ষা বাঁধে আবারো ধস দেখা দিয়েছে। হঠাৎ করে বাঁধের বেশ কিছু সিসি ব্লক মেঘনা নদীতে দেবে গেছে। আর এতে করে ভয়াবহ নদী ভাংগন আতঙ্কে রয়েছে স্থানীয় বাসিন্দারা।

২ জানুয়ারী রবিবার সকালে শহরের লঞ্চঘাটের পাশ্ববর্তী টিলাবাড়ি এলাকায় এই নদী ভাঙন দেখা দেয়। ব্লক ঢেবে যাবার খবর শুনে আশপাশের মানুষ দিকবেদিক ছুটাছুটি করতে থাকে।

খবর পেয়ে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশসহ উর্ধতন সরকারি কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় তিনি দেবে যাওয়া বাঁধের স্থানে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আনোয়ার হালদার জানান, দুপুরে হঠাৎ করেই প্রায় ৮০ ফুট দৈর্ঘ্য এলাকাজুড়ে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়েছে। সেখানে নদীর গভীরতা অনেক।

স্থানীয় বাসিন্দা আলমগীর, রফিক, জহিরুলসহ কয়েকজন জানান, সকালে হঠাৎ করে ব্লক দেবে যাচ্ছে বলে মানুষ ছুটাছুটি শুরু করে। প্রায় ৮০ ফুট এলাকার সিসি ব্লক নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। সিসি ব্লক ধসে পড়ায় বিশাল অংশজুড়ে ফাটল দেখা দিয়েছে। তবে আরো এলাকা ভাঙতে পারে বলে তারা জানান।

স্থানীয়রা জানান, ফাটল স্থানের আশপাশে প্রায় হাজারো পরিবারের লোকজন বসবাস করে। বর্তমানে সবাই আতঙ্কে রয়েছে।

চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মামুন হাওলাদার জানান, আমরা সকাল থেকেই কাজ করছি। ভাঙন ও ফাটলের কারনে প্রায় ৮০ মিঃ এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ। তবে শিঘ্রই ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ কোড়ালিয়া চর এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ নদী থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করায় শহররক্ষা বাঁধের দিকে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এভাবে অপরিকল্পিতভাবে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ করা না হলে ভাঙ্গন পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে বলে আশঙ্কা তাদের।

প্রতিবেদক: আশিক বিন রহিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *