‘জোকার’ আবার আসছে

আর্থার ফ্লেক চরিত্রটির কথা মনে আছে? সমাজের কশাঘাতে যে হয়ে উঠেছিল মানসিক বিকারগ্রস্ত। পেশাগত ও ব্যক্তিগত জীবনের ব্যর্থতা তাকে যুক্তরাষ্ট্রের সমাজে অপরাধে জড়াতে বাধ্য করে। এখনো যদি মনে না পড়ে, তাহলে মেরুন ব্লেজার-প্যান্টের ওপর অনেকটাই হলুদ রঙের কটি পরা আর মুখ-ঠোঁট নয়, চোখের পাশে সাদা, লাল ও নীল রঙে মাইমের মতো আবৃত সাড়াজাগানো সেই ভিলেনের কথা ভাবুন।
এবার হয়তো মনে পড়েছে সেই ‘জোকার’-এর কথা। ২০১৯ সালে বিশ্বব্যাপী সাড়াজাগানো সিনেমা ছিল ‘জোকার’। এর সিকুয়েল দেখার জন্য ভক্তদের অনেক দিনের দাবি ছিল। কিন্তু পরিচালকের একটাই কথা ছিল, না, পরিকল্পনা নেই। প্রথম সিনেমার মতো দারুণ আইডিয়া পেলে ভেবে দেখবেন। অবশেষে তিন বছর পর সিনেমার ক্লাইমেক্সের মতো হঠাৎ ‘জোকার’-ভক্তদের চমকে দিলেন পরিচালক টড ফিলিপস।

টড ফিলিপস তাঁর ইনস্টাগ্রাম আইডিতে শেয়ার করেছেন একটি পাণ্ডুলিপি। মেরুন রঙের সেই পাণ্ডুলিপির কাভারের ওপর লেখা ‘জোকার: ফোটি আ ডিউক্স’। পরে আরেকটি ছবিতে দেখা যায়, কালো চশমা আর সিগারেট মুখে চিরচেনা ভঙ্গিতে সিনেমাটির চিত্রনাট্য পড়ছেন হোয়াকিন ফিনিক্স। তিনিই ‘জোকার’ সিনেমার মূল অভিনেতা। ছবি দুটিই বলে দেয়, আসছে সিকুয়েল। এটিই সিনেমার চিত্রনাট্য। স্টক সিলভার ও টড ফিলিপস এবারও যৌথভাবে সিনেমাটির চিত্রনাট্য লিখেছেন। তবে সিকুয়েল হলেও এর গল্প কী হবে, কবে নাগাদ সিনেমার শুটিং শুরু হবে, আর কারা অভিনয় করবেন, তেমন কোনো আভাস পাওয়া যায়নি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ওয়ার্নার ব্রসের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, দর্শক ‘জোকার’-এর সিকুয়েল দেখতে পাবে।

২০১৯ সালে মুক্তির পর সিনেমাটি নিয়ে তুমুল আলোচনা শুরু হয়। এ ছাড়া একই সঙ্গে চলচ্চিত্র উৎসবে একাধিক পুরস্কার ও বক্স অফিসে সুপার হিট তকমা খুবই কম সিনেমা ভাগ্যে জোটে। সেখানে ব্যতিক্রম ছিল ‘জোকার’। সিনেমাটি ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার ও পরে একাধিক উৎসবে সেরা সিনেমার পুরস্কার জেতে। সিনেমার কিছু বিষয় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হতে পারে—এমন বিতর্কও দেখা দেয়। কিছু দৃশ্যের মারপিট ও হিংস্রতা নিয়ে সমালোচনা হয়। আলোচিত এ সিনেমা অস্কারে ১১টি শাখায় মনোনয়ন পেয়ে সেরা অভিনেতাসহ দুটি শাখায় পুরস্কার জিতে নেয়।

জোকার-আবার-আসছে

২০১৯ সালের ‘জোকার’-এর গল্পে দেখা যায় ১৯৮১ সালের দিকের ঘটনা। আর্থার ফ্লেক নামের ব্যর্থ এক কমেডিয়ান হঠাৎ মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে, যে শহরের বিভিন্ন স্থানে একের পর এক অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের জড়াতে থাকে। ‘জোকার’ চরিত্রটির মধ্য দিয়ে ফুটে ওঠে সমাজের নিপীড়িত ও বঞ্চিত মানুষের কষ্ট ও দুর্দশা। সিনেমাটির পরিচালক টড ফিলিপস ‘জোকার’ সিনেমার পরে আর কোনো সিনেমা পরিচালনা করেননি। ‘জোকার’-এর সিকুয়েল দিয়েই আবার ফিরছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *