ডিসেম্বরে ৯০ লাখ মানুষ পাবে দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ

স্টাফ রিপোর্টার করোনার টিকার দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ যারা এখনও নেননি তাদের জন্য সুখবর। ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে অন্তত ৯০ লাখ মানুষকে কোভিড টিকা দেয়া হবে। বিজয়ের মাসে টিকা দেয়ার বিশেষ এ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
বুধবার ৩০ নভেম্বর রাজধানীর মহাখালীতে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন টিকাদান কর্মসূচির সদস্য সচিব ডা. মো.শামসুল হক।
তিনি জানান সারাদেশের ১৫ হাজার ৯৮৪টি কেন্দ্রের মাধ্যমে এই সময়ে প্রায় ৯০ লাখ ডোজ টিকা দেয়ার লক্ষ্য রয়েছে।
শামসুল হক আরও বলেন,‘ টিকাদান কর্মসূচি চলবে ১-৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত। টিকা নেওয়া থেকে বাদ পড়া ব্যক্তিদের টিকার আওতায় আনাই এ কর্মসূচির লক্ষ্য।’
‘প্রথম ডোজ নিয়ে যারা দ্বিতীয় ডোজের জন্য এবং দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে বুস্টার ডোজের অপেক্ষায় আছেন এমন ব্যক্তিদের টিকা দেব। এখনও প্রায় ৫০ % মানুষ বুস্টার ডোজের অপেক্ষায় আছেন, তারা যেন বুস্টার ডোজ পেতে পারেন, সে উদ্দেশ্যেই করব।’
তিনি আরও জানান, করোনা টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ করেছে টিকাসংক্রান্ত কারিগরি উপদেষ্টা কমিটি। তাদের টিকা দেয়ার জন্য পর্যাপ্ত টিকা আছে। আমরা ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি,অন্তঃসত্ত্বা নারী ও সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধাদের শিগগিরই টিকা দেয়া শুরু করব।
টিকা দেওয়ার তথ্য তুলে ধরে ডা. শামসুল হক জানান, এখন পর্যন্ত দেশের মোট জনগোষ্ঠীর ৮৭ শতাংশ মানুষ টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছে। আর ৭৩ % দ্বিতীয় ডোজ এবং বুস্টার পেয়োছ ৫২ % মানুষ। এ অবস্থায় আগামী ১ থেকে ৭ ডিসেম্বর বিশেষ টিকা ক্যাম্পেইন হবে সারাদেশে।
শামসুল হক জানান, এখন পর্যন্ত ৮৭ শতাংশ মানুষ টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছে, ৭৩ শতাংশ মানুষ দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছে। এ ছাড়া বুস্টার ডোজ পেয়েছে ৫২ শতাংশ।
প্রথম ডোজের টিকা প্রদান অফিসিয়ালি বন্ধ হয়েছে। তবে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে যে কেউ প্রথম ডোজের টিকা নিতে পারবে বলে জানিয়েছেন টিকা প্রয়োগ ব্যবস্থাপনা কমিটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *