ডেঙ্গুর প্রকোপ যেন ছড়িয়ে না পড়ে

ডেঙ্গুর প্রকোপ যেন ছড়িয়ে না পড়ে

কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল

আবারও ডেঙ্গু মশার উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। ঢাকার হাসপাতালে প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু রুগীর সংখ্যা। এতে আমরা চাঁদপুরের মতো মফস্বলে থেকেও সঙ্কিত না হয়ে পারছি না। তাই স্থানীয় পর্যায়েও ডেঙ্গুর উপদ্রব ঠেকাতে পদক্ষেপ নেওয়া জরুরী বলে

মনেকরছি। দেশে এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত

হয়ে মৃতের সংখ্যা আটজনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ৯৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত

 

হয়েছে।
এর মধ্যে ঢাকার ৪৭টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৭৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ভর্তি হয়েছেন ২৫ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা

হয়েছে, সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে বর্তমানে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৩০১ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে ২২৭ জন ঢাকার

মধ্যে এবং ৭৪ জন রোগী ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

 

 

সরকারি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ১ জানুয়ারি থেকে ২৬ জুলাই ২০২২ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ২ হাজার ৩০৫ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ১ হাজার ৯৫১ জন ও ঢাকার বাইরে ভর্তি হয়েছেন ৩৫৪ জন ডেঙ্গু রোগী।

অন্যদিকে, চিকিৎসা শেষে ১ হাজার ৯৯৬ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। এদের মধ্যে ১ হাজার ৭২১ জন ঢাকার বাসিন্দা, বাকি ২৭৫ জন ঢাকার বাইরের অন্যান্য জেলার বাসিন্দা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.