অস্কারে অঘটন: স্ত্রীকে নিয়ে ঠাট্টা করায় উপস্থাপককে চড় কষলেন স্মিথ

বড় বড় অনুষ্ঠানে অনেক অঘটন ঘটে, যার নানাভাবে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়। কেউ বলেন স্ক্রিপ্ট, কেউ বলেন সাজানো। তবে আজকের অস্কারের আয়োজনে যা হয়ে গেল, তার ভিন্ন ব্যাখ্যা দেওয়া কঠিন। রীতিমতো উপস্থাপককে সপাটে চড়!
৯৪তম অস্কারে ঘটল অনাকাঙ্ক্ষিত এক ঘটনা। মঞ্চে মার্কিন কমেডিয়ান ক্রিস রককে চড় কষলেন অস্কারজয়ী অভিনেতা উইল স্মিথ। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক পুরো বিশ্ব।

বাংলাদেশ সময় আজ সোমবার সকাল ছয়টায় যুক্তরাষ্ট্রের ডলবি থিয়েটারে শুরু হয় ৯৪তম অস্কার অনুষ্ঠান। সে অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে পুরস্কার দিতে মঞ্চে আসেন ক্রিস রক। মঞ্চে দাঁড়িয়ে উইল স্মিথের স্ত্রীকে নিয়ে ঠাট্টা করেন ক্রিস। চুল পড়ার সমস্যার কারণে ন্যাড়া মাথায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন অস্কারজয়ী অভিনেতা উইল স্মিথের স্ত্রী জাডা পিংকেট স্মিথ।

উইল স্মিথের স্ত্রীর দিকে তাকিয়ে ক্রিস বলেন, ‘জাডা, “জিআই জেন টু”-এর জন্য তর সইছে না।’ ‘জিআই জেন’ ১৯৯৭ সালের ছবি, যেখানে কেন্দ্রীয় চরিত্রের অভিনয়শিল্পী ডেমি মুরের ছিল ন্যাড়া মাথার জর্ডান ও’নিলের চরিত্র।

ক্রিসের এ রসিকতায় শুরুতে হাসতে দেখা যায় দর্শকসারিতে বসা উইল স্মিথকে কিন্তু বিরক্ত হন তাঁর স্ত্রী জাডা। উইল স্মিথ আসন ছেড়ে উঠে মঞ্চে গিয়ে কষে এক থাপ্পড় মারেন ক্রিসের গালে। পরে বিষয়টিকে হালকা করতে ব্যাখ্যা দিচ্ছিলেন ক্রিস।

আসনে ফিরে চিৎকার করে স্মিথ তাঁর উদ্দেশে বলেন, ‘তোমার নোংরা মুখে আমার স্ত্রীর নাম নেবে না।’ ঘটনার জন্য অবশ্য পরে একাডেমি কর্তৃপক্ষ ও সহশিল্পীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন স্মিথ। এদিকে থাপ্পড় খেয়ে হতভম্ব ক্রিস দর্শকদের উদ্দেশে বলেন, ‘টেলিভিশনের ইতিহাসে এটা একটা স্মরণীয় রাত হয়ে থাকবে।’ তারপর তিনি সেরা তথ্যচিত্রের পুরস্কার তুলে দেন বিজয়ীর হাতে।

 অস্কারে-অঘটন-স্ত্রীকে-নিয়ে-ঠাট্টা-করায়-উপস্থাপককে-চড়-কষলেন-স্মিথ

ঘটনায় চমকে যান আয়োজক ও উপস্থিত সাংবাদিকেরা। শুরুতে ঘটনাটিকে সাজানো বলে মনে করলেও দ্রুত সবাই বুঝে ফেলেন যে এটা পূর্বপরিকল্পিত নয়, বরং এক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। দুই অভিনেতাই টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের পুরোনো মানুষ।

দুজনই জানেন এ ধরনের ঘটনা কীভাবে সামাল দিতে হয়। কিন্তু দর্শকেরা হতভম্ব হয়ে পড়েন। এবিসি টেলিভিশন হঠাৎ কিছুক্ষণের জন্য অনুষ্ঠান সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়।
২০১৮ সালে ফেসবুক আলাপন অনুষ্ঠান ‘রেড টেবিল টক’-এ নিজের চুল পড়া নিয়ে কথা বলেন পিংকেট স্মিথ। তিনি বলেন, ‘চুল পড়া নিয়ে বড্ড সমস্যায় আছি। যখন এটা শুরু হয়, তখন বেশ ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।’ একবার গোসলের সময় একগোছা চুল পড়ে যাওয়ায় তিনি সন্দেহ করেছিলেন তিনি অ্যালোপেসিয়ায় আক্রান্ত। তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছিল, হায় খোদা, আমি এবার ন্যাড়া হয়ে যাব!’
‘কিং রিচার্ড’ ছবিতে রিচার্ড উইলিয়ামস চরিত্রে অভিনয়ের জন্য ৯৪তম অস্কারে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন উইল স্মিথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.