ডাকাতিয়া নদী অবৈধ দখল অব্যাহত

চাঁদপুর মেঘনা মোহনা থেকে শুরু করে সদর উপজেলা, হাজীগঞ্জ, শাহরাস্তি হয়ে জেলার সীমান্ত পর্যন্ত ডাকাতিয়া নদীর বিভিন্ন অংশ অবৈধভাবে দখল অব্যাহত রয়েছে। অবৈধ দখলের কারণে প্রায় মৃত এই নদীতে কোন কোন অংশে খুবই সরু হয়ে পড়েছে। বর্ষা ছাড়া শুকনো মৌসুমে সাধারণ নৌযান চলাচলই অসম্ভব হয়ে পড়ে। ইতোমধ্যে ইচুলীঘাট পর্যন্ত লঞ্চ চলাচল বন্ধ।

সম্প্রতি সময়ে শহরের বাগাদী রোড এলাকায় দেখাগেছে ডাকাতিয়ার পাড় দখল করে করাতকল বসানো হচ্ছে। আশাপাশে তৈরী হয়েছে আরো স্থাপনা। এই অবৈধ দখলটি বিআইডাব্লিউটিএ কার্যালয় থেকে ৫ থেকে ৭শ’ গজ দক্ষিণে।

স্থানীয় বেশ কয়েকজন বাসিন্দা জানান, শুধুমাত্র ডাকাতিয়া নদী দখল নয়। নদীর পাড়ে গড়ে উঠেছে বহু সংখ্যক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। বিশেষ করে ইট, বালু ও সিমেন্ট ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্যের কমতি নেই। বালু ব্যবসায়ীদের কারণে শহরের স্বাভাবিক পরিবেশ ব্যহত হচ্ছে। এসব বিষয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি দেয়া খুবই প্রয়োজন।

সরকারের পক্ষ থেকে বহুবার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে নদীতে থাকা সকল অবৈধ দখল উচ্ছে করার জন্য। অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছেন অবৈধভাবে দখল করা নদী, খাল ও জলাশয় উদ্ধার করতে অভিযান পরিচালনা করার জন্য।

তবে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাগাদী রোড, ট্রাকঘাটে বেশ কয়েকবার ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে উচ্ছেদ অভিযান করা হলেও কিছুদিন পরে আবারও সেই আগের অবস্থার সৃষ্টি হয়।

ব্র্যান্ডিং জেলা চাঁদপুরে সৌন্দর্য রক্ষায় জেলা প্রশাসন, পৌরসভা কর্তৃপক্ষসহ সকলে মিলে নদীর অবৈধ দখল উচ্ছেদ করার দাবী স্থানীয় বাসিন্দাদের।

স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published.