শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে : সুজিত রায় নন্দী

 

স্টাফ রিপোর্টার

চাঁদপুর সদর উপজেলা ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সকাল ১০টায় কলেজের গান্ধী ভবনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আয়োজিত পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনায় ভার্চ্যুয়ালী প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও কলেজের নবাগত সভাপতি প্রফেসর ড. মীজানুর রহমান।
তিনি বক্তব্যে বলেন, আমি ফরাক্কাবাদ ডিগ্রী কলেজে গিয়েছি, মনোরম পরিবেশে গড়ে উঠা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যেঘেরা কলেজটি দেখতে খুবই সুন্দর। এ কলেজের দায়িত্ব প্রদান করে আমাকে কাজ করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। কলেজ উন্নয়নে আমার যা যা করনীয় আমি তা করতে চেস্টা করব। চেস্টা করব ছাত্র ছাত্রীদের কল্যানে কাজ করতে। কলেজ উন্নযনে তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন এবং কলেজ প্রতিষ্টাতাসহ যারা তাকে কলেজ গভর্নিংবডির সভাপতি পদে মনোনয়ন করেছেন সকলের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
বিদায় সংবর্ধনা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক এবং কলেজের সাবেক সভাপতি সুজিত রায় নন্দী। তিনি কলেজ গভর্নিংবডির

নবনির্বাচিত সভাপতির প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, অনেক স্বপ্ন নিয়ে এ কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছি। লক্ষ্য ছিল কলেজকে কেন্দ্র করে এলাকা আলোকিত হবে। দেশ বিদেশের মানুষের কাছে ফরাক্কাবাদ

 

বিশেষভাবে পরিচিতি লাভ করবে। গৌরবময় স্থান হিসেবে ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর সকলের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। আজ ধাপে ধাপে আমার সেই স্বপ্ন পুরন হতে চলছে। আজ ফরাক্কাবাদ কলেজ পরিচালনায় গর্ভনিংবডির সভাপতির পদ অলংকৃত করেছেন দেশবরেণ্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. মীজানুর রহমান। আমি স্যারকে আন্তরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি। অনেক প্রতিকুল অবস্থার মধ্যে দিয়েও

শিক্ষাক্ষেত্রে ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছে ফরাক্কাবাদ ডিগ্রী কলেজ।

 

তিনি আরো বলেন, এগিয়ে যাওয়ার এ কৃতিত্ব ছাত্র ছাত্রীসহ শিক্ষক অভিভাবকদের। তোমাদের সকলের ক্রমাগত চেস্টা অব্যাহত থাকলে কলেজটি একদিন দেশের সেরা কলেজগুলোর মধ্যে নিজেদের অবস্থান

জানান দিতে পারবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। জাতির জনকের স্বপ্ন পুরনে তোমাদেরকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে, দেশকে ভালোবাসতে হবে।

দেশের স্বপ্ন পুরনে আর বাবা মা ও কলেজের সুনাম রক্ষায় তোমাদেরকে আদর্শ মানুষ হতে হবে। মনে রাখবে সুন্দর জীবন গড়তে হলে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। আজ দেশ গঠনে, দেশের মানুষের আর্থিক, সামাজিক

উন্নয়নে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পুরনে কাজ করছেন তারই সুযোগ্য সন্তান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। দেশ গঠনে তাকে সহযোগীতা করা প্রতিটি দেশপ্রেমীক নাগরিকের কর্তব্য। আশা করি তোমরা বড় হয়ে দেশ গঠনে যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) বশির আহম্মেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায়। স্বগত বক্তব্য রাখেন কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) দিলীপ

চন্দ্র দাস।
কলেজের সহকারি অধ্যাপক হাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মো. রফিকুল্ল্যাহ পাটওয়ারী, জগন্নাত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং

 

কলেজ বিদুৎসাহী সদস্য আব্দুল্লাহ আল মমিন, দাতা সদস্য সৈয়দ আহম্মেদ পাটোয়ারী, বিদুৎসাহী সদস্য রুহুল আমিন মিয়াজী, আমিনুল হক মজুমদার, হিতৈষী সদস্য হরুনুর অর রশিদ তালুকদার, অভিভাবক সদস্য আ. হান্নান মিয়াজী, সেলিম পাটওয়ারী, মো. ইব্রাহিম খানসহ কলেজ শিক্ষক শিক্ষার্থী, অভিভাবক প্রতিনিধি ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অ্যাডঃ জহিরুল ইসলাম জহির, পৌর আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ দেবাশীষ কর মধুসহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ, অভিভাবক মন্ডলী ছাত্র

 

ছাত্রীসহ সুধীজনদের ব্যাপক উপস্থিতি পরিলক্ষিত হয়।
উল্লেখ্য এবছর ২৫৯ জন পরীক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করবেন বলে জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *