চাঁদপুরে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে বাজার তদারকি জরুরি

কঠোর লকডাউন পরবর্তী ঈদ ও কঠোর বিধিনিষেধের সময় নানা অজুহাতে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট দ্রব্যমূল্যে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। সেটি এখন চলমান রয়েছে। এমনিতেই মানুষ দীর্ঘসময় কর্মহীন থাকায় দুর্বিষহ জীবন অতিবাহিত করছে।

করোনা ও লকডাউন পরবর্তী ব্যবসায়ীরা নানা অজুহাতে আগের দামেই রাখছেন নিত্যপণের দাম। গত কয়েক দিনে চাঁদপুর শহরের পুরান বাজার, নতুন বাজার, পাল বাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুর দেখা যায় ১মাস কিংবা ১৫ দিনের ব্যবদানে নিত্য প্রয়োজনীয় অনেক জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে।

এরমধ্যে রয়েছে চাল, চিনি, খেসারি ডাল, ছোলা বুট, সয়াবিন তৈল, ভেসন, অদাা, রসুন, পেয়াজ, জিরা, এলাচ, ইসুবগুল, আলু, গাঁজর, টমেটো, কালো বেগুনসহ বিভিন্ন জিনিসপত্রের দাম কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা বাড়িয়ে আগের তুলনায় বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।
অতি মুনাফা পাওয়ার আশায় কিছু কিছু ব্যবসায়ী নিজেদের খামখেয়ালী মতোই জিনিসপত্রে দাম বাড়িয়ে ব্যবসা করছেন।

বিষয়টি চাঁদপুর ভোক্তা অধিকার ও ক্যাবের বাজার তদারকি বাড়ানো জরুরি। মোবাইল কোর্ট এতোদিন স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে ব্যবহার হলেও এটি এখন বাজারের দিকে নজর দেয়া জরুরি। নচেৎ খেটে খাওয়া মানুষের জীবন আরও বেশি দুর্বিষহ হয়ে উঠবে। আশা করি জেলা প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট বিভাগ বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় রাখবে।

কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *