নারায়ণগঞ্জ-চাঁদপুর নৌপথে লঞ্চ চলাচল শুরু

স্টাফ রিপোর্টার: শীতলক্ষ্যা নদীতে কার্গো জাহাজের ধাক্কায় লঞ্চডুবির ঘটনার সাত দিন পর নারায়ণগঞ্জ-চাঁদপুর নৌপথে লঞ্চ চালু করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।
শুক্রবার থেকে এই নৌপথে এমভি নিউ আরিফ নামে দোতলা লঞ্চ চলাচল শুরু হয়। রবিবার (২৭ মার্চ) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-পরিচালক (নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক) বাবু লাল বৈদ্য।

গত রবিবার (২০ মার্চ) শীতলক্ষ্যা নদীতে কার্গো জাহাজের ধাক্কায় এমএল আফসারউদ্দিন লঞ্চ ডুবে ১০ জনের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনার পর থেকে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি এড়াতে নারায়ণগঞ্জ থেকে পাঁচ নৌপথে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয় বিআইডব্লিউটিএ।

বাবু লাল বৈদ্য বলেন, শুক্রবার থেকে নারায়ণগঞ্জ-চাঁদপুর নৌপথে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। ঢাকা-সদরঘাট থেকে এমভি নিউ আরিফ নামে একটি দোতলা লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। লঞ্চটি সকাল সাড়ে ৭টায় চাঁদপুর থেকে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। দুপুর দেড়টায় নারায়ণগঞ্জ থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। লঞ্চটির যাত্রী ধারণক্ষমতা ৪০০ জন। তবে এখন পর্যন্ত শতাধিক যাত্রী নিয়ে যাতায়াত করছে লঞ্চটি।এই লঞ্চটি বড়, যে কারণে ঝুঁকি কম।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বেলা সোয়া ২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় লঞ্চ টার্মিনাল থেকে এএসটি শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত নৌযান যাত্রী নিয়ে মুন্সীগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। প্রথম দিন ৩০ জন যাত্রী নিয়ে সি-ট্রাকটি এই পথে যাত্রা শুরু করে। নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ রুটে এখনও সি-ট্রাক চলাচল অব্যাহত আছে।

গত ২০ মার্চ দুপুর সোয়া ২টায় শীতলক্ষ্যা নদীর চর সৈয়দপুর এলাকায় কার্গো জাহাজ রূপসী-৯-এর ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চ এমএল আফসারউদ্দিন ডুবে যায়। এতে নারী-শিশুসহ ১০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকে নারায়ণগঞ্জ থেকে সাতটি নৌপথে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয় বিআইডব্লিউটিএ। এতে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.