হানারচর ইউপি নির্বাচন স্থগিত করেছে হাইকোর্ট

চাঁদপুর সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আ. ছাত্তার রাড়ীর রিটের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খন্দকার দিলীরুজ্জামানের বেঞ্চ শুনানি শেষে নির্বাচন স্থগিতের এ আদেশ দেন।

রিটে বর্তমান চেয়ারম্যান আ. ছাত্তার রাড়ী উল্লেখ করেন, ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র বিন্যাস সঠিকভাবে করা হয়নি। একই স্থানে দুটি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র করা হয়েছে। এতে ইউনিয়নের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হতে পারে।

রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মনিরুজ্জামন আসাদ ও ব্যরিস্টার আতিকুর রহমান। ফাইলিং আইনজীবী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অ্যাডভোকেট মোসাম্মৎ মনিরা সুলতানা।

ব্যারিস্টার মনিরুজ্জামন আসাদ জানান, সুষ্ঠু, সুন্দর এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ত্রুটিগুলো আদালত আমলে নিয়ে আগামী ৬ মাসের জন্য নির্বাচন স্থগিত করেছে।

এ বিষয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমার ইউনিয়নবাসীর জানমালের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আমি রিট করেছি। তাছাড়া এ ইউনিয়নবাসী আগেরবার আমাকে ভোট দিয়ে নৌকায় বিজয় করেছে। বিগত পাঁচ বছর তাদের সেবা করেছি বলে এবারের নির্বাচনে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা থাকায় আমি রিট করেছি।’

অপর দিকে বর্তমান নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মকবুল হোসেন মিয়াজির বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন, যাদের আদর্শ আর নৌকার বিজয় করতে ইউনিয়নবাসীর কাছে গিয়ে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করেছি। আমি আশায় ছিলাম হানারচর ইউনিয়নবাসী এবারও নৌকার বিজয় করে আমাকে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করে তাদের সেবা করার দায়িত্ব দিত। কিšুÍ বর্তমান চেয়ারম্যান কেনো রিট করে নির্বাচন দু মাসের জন্য স্থগিত করলো তাহা বুঝতে পারছি না।’

অপর দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মোজাম্মেল হোসেন টিটু গাজীর বলেন, ‘আমি কিছুই জানি না। আমি জানি ১১ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর আমার ইউনিয়নবাসী আমার আনারস প্রতীকে ভোট দিয়ে বিপুল ভোটে বিজয় করে তাদের সেবা ও উন্নয়ন করার সুযোগ দিবে। কেনো না বিগত দিনের নির্বাচনি প্রচার প্রচারনায় আমি ভোটারদের বলেছি আপনারা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দিবেন আমাদের ইউনিয়নে কোন সহিংসতা হতে আমরা দেবো না।’

স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *