বাচিক শিল্পী পার্থ ঘোষ চলে গেলেন

প্রখ্যাত বাচিক শিল্পী পার্থ ঘোষ আজ সকালে হঠাৎ হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে বিদায় নিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। তিনি এবং তাঁর স্ত্রী গৌরী ঘোষের আবৃত্তি পশ্চিম বাংলায় দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ থাকলে তাঁকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করান হয় হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে তাঁর গলায় অস্ত্রোপচার হয়। হাসপাতালে সুস্থ হওয়ার পর আজ শনিবার সকাল ৭টা ৩৫ মিনিটে হঠাৎ হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

মাত্র ৮ মাস আগে তাঁর স্ত্রী প্রখ্যাত বাচিক শিল্পী গৌরী ঘোষও ও মারা যান সেই গত বছরের ২৬ আগস্ট। এই যুগল বাচিক শিল্পী আকাশবাণীতে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন আবৃত্তিকার, উপস্থাপক হিসেবে। কর্ণ আর কুন্তি নামে এই যুগলের সংবাদ দারুণ সাড়া ফেলে ছিল। এই যুগলের আবৃত্তির অনুষ্ঠান কেড়ে নিয়েছিল মানুষের হৃদয়কে। দেবতার গ্রাস, বিদায়, শেষ বসন্তের আবৃত্তি আজও মানুষের মনে জেগে আছে।

এ দম্পতির যুগল শ্রুতি নাটক প্রেম, জীবনবৃত্ত ও স্বর্গ থেকে নীল পাখি স্মরণীয় হয়ে আছে।

বাচিক-শিল্পী-পার্থ-ঘোষ-চলে-গেলেন-

পশ্চিমবঙ্গ সরকার পার্থ ঘোষকে ২০১৮ সালে বঙ্গভূষণ পদকে সম্মানিত করেছিলেন। তিনি ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ কবিতা একাডেমির উপদেষ্টা।

আজ হাসপাতাল থেকে তাঁর মরদেহ নেওয়া হবে পার্থ দমদমের বাসভবনে। সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তাঁর শেষকৃত্য হবে নিমতলা মহাশ্মশানে।

পার্থ ঘোষের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আজ আমাদের আবৃত্তি জগতের এক নক্ষত্রের পতন হলো। তাঁর মননশীল অনবদ্য আবৃত্তি শ্রোতাদের হৃদয়ে চিরস্থায়ী হয়ে থাকবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.