স্বামী–স্ত্রীর পাল্টাপাল্টি মামলার শুনানি শুরু

হলিউড তারকা আম্বার হার্ড ও জনি ডেপের পাল্টাপাল্টি মামলার শুনানি শুরু হয়েছে। স্বামীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন, পত্রিকায় এ নিয়ে নিবন্ধ লেখায় সাবেক স্ত্রীর নামে ৫০ মিলিয়ন ডলারের মানহানির মামলা করেছেন পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান তারকা জনি ডেপ। পরে হার্ড উল্টো ১০০ মিলিয়ন ডলার মানহানির মামলা করেন জনির বিরুদ্ধে। গতকাল মঙ্গলবার মামলার শুনানি শুরু হয়েছে।

মাত্র ১৫ মাস সংসার করে ২০১৬ সালের মে মাসে বিচ্ছেদের আবেদন করেন জনি ও আম্বার স্ত্রী আম্বারের অভিযোগ ছিল, জনি তাঁকে শারীরিক, মানসিক ও মৌখিকভাবে নির্যাতন করেছেন। ডেপ সেসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ২০১৮ সালে সেই নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট–এ একটি উপসম্পাদকীয় লেখেন আম্বার হার্ড। সেখানে পাবলিক ফিগার হয়েও নিজেকে স্বামীর নির্যাতনের শিকার বলে দাবি করেন হার্ড। সেখানে তিনি লেখেন, ‘নির্যাতনের অভিযোগের পরও প্রতিষ্ঠানগুলো কীভাবে অভিযুক্ত পুরুষদের রক্ষা করে, বাস্তব জীবনে সেটা দেখার বিরল সুযোগ আমার হয়েছিল।’ যদিও সেখানে তিনি তাঁর সাবেক স্বামীর নাম উল্লেখ করেননি। তবু জনি ডেপ লেখাটির কারণে তাঁর ক্যারিয়ারে ক্ষতি হয়েছে দাবি করে হার্ডের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন।

 স্বামী–স্ত্রীর-পাল্টাপাল্টি-মামলার-শুনানি-শুরু

শুনানির দিন আদালতের বাইরে ন্যায়বিচারের দাবিতে ভিড় করেন ভক্তরা, যাঁদের বেশির ভাগই জনির পক্ষে। অনেকেই বহুদূর থেকে সেখানে এসেছিলেন। তাঁদের কারও কারও দাবি, জনি লন্ডনে বিচার পাননি। তাঁদের প্রত্যাশা, অন্তত যুক্তরাষ্ট্রে সুবিচার পাবেন প্রিয় অভিনেতা। শুনানি চলবে ছয় থেকে সাত সপ্তাহ। এ শুনানি সরাসরি সম্প্রচার করা হবে এবং এতে সাক্ষী হিসেবে থাকবেন বেশ কয়েকজন হাইপ্রোফাইল ব্যক্তি। হার্ডের পক্ষে থাকবেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক ও স্পাইডার–ম্যান ছবির অন্যতম অভিনেতা জেমস ফ্র্যাঙ্কো। ব্রিটিশ অভিনেতা পল বেটানি দাঁড়াবেন বন্ধু জনির পক্ষে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.