বরফের মধ্যে ৩ ঘন্টা ধ্যান

বলিউডের অ্যাকশন হিরোর তকমা রয়েছে বিদ্যুৎ জামওয়ালের সঙ্গে। শুধু অ্যাকশন নয়, তার সঙ্গে বডি ফিটনেসেও তাঁর তুলনা মেলা ভার। স্টান্টম্যানের সাহায্য না নিয়েই সিনেমায় অ্যাকশন দৃশ্যগুলোয় নিজেই স্টান্ট করেন তিনি। আর তাঁর অ্যাকশন দৃশ্যে মার্শাল আর্টের ছাপ থাকে। কারণ, তিনি নিজেই একজন মার্শাল আর্টের শিল্পী। মাঝে মাঝে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনুরাগীদের জন্য তাঁর বিভিন্ন স্টান্ট ও মার্শাল আর্টের ছবি বা ভিডিও শেয়ার করেন।

এবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও শেয়ার করলেন বিদ্যুৎ। যেখানে মার্শাল আর্টের অনন্য নজির দেখালেন বিদ্যুৎ জামওয়াল। বরফে ঢাকা চারদিক। প্রায় তিন ঘণ্টা এই বরফের মধ্যে খালি গায়ে ডুবে থেকে ধ্যান করলেন তিনি। ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘কালারিপায়াত্তু বলতেন, তোমাদের মধ্যে একজন যোগী রয়েছেন, যিনি জাগার অপেক্ষায় রয়েছেন।’

এই ভিডিওতে তিনি বুঝিয়ে দিলেন, এত সহজ নয় মার্শাল আর্ট। ছয় ফুট গভীর বরফের পানির মধ্যে নিজের পুরো শরীরকে মিশিয়ে দিয়ে বিদ্যুৎ জামওয়ালকে দেখা গেল ধ্যানমগ্ন হতে। এ প্রসঙ্গে ভারতীয় গণমাধ্যমকে বিদ্যুৎ জানান, একজন মার্শাল আর্টের শিল্পীকে রোজ নিজের শরীর নিয়ে নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে হয়। রোজ নতুন কিছুর সঙ্গে শরীরকে সইয়ে নেওয়া উচিত। বরফে ডুবে ধ্যান তারই একটা অংশ।

বরফের-মধ্যে-৩-ঘন্টা-ধ্যান

জনপ্রিয় এই বলিউড তারকা ছোট থেকেই মার্শাল আর্টের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। তিন বছর বয়স থেকে কালারিপায়াত্তু সমস্ত শিক্ষা নিয়েছেন তিনি। আগে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, তাঁর ইচ্ছা ভারতীয় সিনেমায় দেশীয় মার্শাল আর্টকে আরও জনপ্রিয় করে তোলা। তিনি স্বপ্ন দেখেন একদিন মানুষ ভারতীয় ছবিতে কালারিপায়াত্তু সম্পর্কে কথা বলবে। এটি আসল ভারতীয় মার্শাল আর্ট।

তাঁর শরীরচর্চা ও ফিটনেস খু্ব ঈর্ষণীয়। তবে কেবল শরীরচর্চা নয়, মার্শাল আর্টে তাঁকে চ্যালেঞ্জ জানানো যে সত্যিই খুব কঠিন। গত বছর গুগলে বিশ্বসেরা মার্শাল আর্টিস্টদের তালিকায় স্থানও করে নিয়েছিলেন তিনি। ২০১১ সালে অভিনয়জগতে পা রাখলেও ২০১৩ সালে ‘কমান্ডো’ ছবি করে বিদ্যুৎ জামওয়াল সবার নজরে পড়েন। এই মুহূর্তে অভিনেতা ব্যস্ত তাঁর নতুন ছবি ‘খুদা হাফিজ ২’-এর প্রচার নিয়ে। ৮ জুলাই মুক্তি পাবে তাঁর এই ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.