বৃষ্টি হেরে গেছে, জমে উঠেছে কোক স্টুডিও বাংলার কনসার্ট

শেষ পর্যন্ত বৃষ্টিই হার মানল সংগীতপিপাসু অগণিত দর্শক আর শিল্পীর কাছে। বৃষ্টি বাধা হতে পারেনি আর্মি স্টেডিয়ামে সমাগত সংগীতপিপাসুদের কাছে। সারা দিনের অনিশ্চয়তার পর অবশেষে বৃহস্পতিবার রাত নয়টায় মাঠভর্তি দর্শক–শ্রোতাকে সাক্ষী করে কোক স্টুডিও বাংলা টিমের সদস্যদের পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শুরু হয় কনসার্টের মূল আয়োজন। ফেসবুক লাইভেও দেশ-বিদেশ থেকে সে কনসার্টেই শামিল হন অগণিত শ্রোতা। প্রথম আলো ফেসবুক পেজ থেকেও প্রচার হয় এ কনসার্ট।

কনসার্টের শুরুতেই শায়ান চৌধুরী অর্ণব ও সুনিধি নায়েক কোক স্টুডিও বাংলার সদস্যদের নিয়ে মঞ্চে ওঠেন। শুরুতেই তাঁরা পরিবেশন করেন ‘একলা চল রে’। এভাবেই শুরু হয় কোক স্টুডিও বাংলার কনসার্ট। এর আগে ফিফা ট্রফি দেখানো হয় দর্শকদের।

কথা ছিল বৃহস্পতিবার বেলা ১টা ৩০ মিনিটে কনসার্টের গেট খুলবে। কিন্তু বৃষ্টির কারণে আয়োজনটি দেরি করে শুরু করার কথা জানান গ্রে অ্যাডভারটাইজিং বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী সৈয়দ গাওসুল আলম শাওন।

একপর্যায়ে ছড়িয়ে পড়ে আয়োজনটি স্থগিত করার খবরও। কিন্তু আবহাওয়া কিছুটা অনুকূলে আসায় স্থগিত সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন আয়োজকেরা। কনসার্টে আরও গান পরিবেশন করবেন জেমস, তাহসান, ব্যান্ড লালন, নেমেসিসসহ অনেকে।

অর্ণব ও সুনিধি ছাড়াও এখন পর্যন্ত গেয়েছেন পান্থ কানাই ও অনিমেষ। তাঁরা কোক স্টুডিওর জনপ্রিয় গান ‘নাসেক নাসেক’ পরিবেশন করেন।

 বৃষ্টি-হেরে-গেছে-জমে-উঠেছে-কোক-স্টুডিও-বাংলার-কনসার্ট

তাঁদের ১৫ মিনিটের পরিবেশনায় আর্মি স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকদের মধ্যে বাড়তি আগ্রহ দেখা যায়। এর মধ্যেই গান নিয়ে দর্শক মাতাতে আসেন ঋতু রাজ ও নন্দিতা। তাঁরা গেয়ে শোনান ‘বাগিচায় বুলবুলি’। রাত সাড়ে ১০টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কনসার্ট চলছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *