চাঁদপুরে ৬১টি সিমসহ বিকাশ ব্যবসায়ী আটক

১ কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা বিকাশ জালিয়াতি মামলায় চাঁদপুর পুরান বাজার থেকে ৬১টি সিমসহ রাজিব বেপারী নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে চাঁদপুর পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড বেপারি বাড়িতে ঢাকার ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। আটক রাজিব বেপারি বাড়ির মৃত জিতু বেপারির বড় ছেলে।

পুলিশ সূত্র জানায়, চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা তোহা নামের এক যুবক ঢাকায় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন। সেই গার্মেন্টস থেকে চুরি করা এক কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা তোহা তার বন্ধু বেপারী বাড়ীর রাজিব বেপারী বিকাশের সিমে পাঠান। সেই টাকা তোহার কথা মতো রাজিব বিকাশ থেকে উত্তোলন করে বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে দিত।

সেই ঘটনায় গার্মেন্টসের মালিক ঢাকা কাফরুল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় তোহা গ্রেপ্তার হওয়ার পর তার সূত্রধরে অবশেষে চাঁদপুরে ঢাকার ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাজীবকে আটক করতে সক্ষম হয়। এ সময় ডিবি পুলিশ রাজিবের ঘর থেকে ৬১টি বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল সিম জব্দ করেন। ডিবির মামলায় রাজীবকে গ্রেফতার দেখিয়ে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

রাজীবের মা জানান, তোহা ও রাজিব ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। চাঁদপুর শহরের সদর হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় একটি বিকাশের দোকান দিয়ে রাজিব দীর্ঘদিন ব্যবসা করছে। বেশ কিছুদিন দোকান ছেড়ে দিয়ে রাজিব বাড়িতে অবস্থান করছে। তোহা একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকরি করতো। সেই সুবাদে রাজিবের বিকাশ নাম্বারে প্রায় সময় টাকা পাঠাত। সেই টাকা তোহার কথা মতো তার আত্মীয়-স্বজনের কাছে রাজিব পৌঁছে দিত। শুধুমাত্র কমিশনের টাকা সে পেত। কিন্তু রাজিব নিরাপরাধ হওয়া সত্ত্বেও তাকে ডিবি পুলিশ আটক করে নিয়ে গেছে।

এদিকে চাঁদপুর পুরান বাজারে এই প্রথম বিকাশ জালিয়াতি মামলায় ঢাকার ডিবি পুলিশ রাজীব নামে এক বিকাশ ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। এই ঘটনার তদন্তপূর্বক যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল।

স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published.