বিদ্যালয় পর্যায়ে জাতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়ন প্রস্তুতি উপলক্ষ্যে কিন্ডারগার্টেন স্কুল প্রধানদের নিয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসের আলোচনা সভা

 

স্টাফ রিপোর্টার

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যালয় পর্যায়ে জাতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়ন প্রস্তুতি ২০২২ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার আয়োজনে চাঁদপুর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসের এক আলোচনা সভা গতকাল সকাল ৯ টায় চাঁদপুর ওয়াইডব্লিউসি স্কুলে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আঃ হাই। প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা ইউআরসি ইন্সট্রাক্টর ছাদেক হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আঃ হাই বলেন, সরকার শিক্ষাক্ষেত্রে যোগ্যতা ভিত্তিক মূল্যায়নের যুগান্তকারী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। শিক্ষার্থীদেরকে বাস্তবভিত্তিক যোগ্য

 

করে গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই। আমাদের শিক্ষার্থীরা এখন জিপিএ-৫ পায়, অনার্স এবং মাস্টার্সে ফাষ্টক্লাস পায় কিন্তু তিনি একটি এপ্লিকেশন লিখতে পারেন না। এজন্য সরকার যুগোপযোগী এবং বাস্তবভিত্তিক

শিখন পদ্ধতি এবং শিক্ষার্থী মূল্যায়নের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এ জন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে জাতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়ন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তৃতীয় শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত সকল শিক্ষার্থী এই মূল্যায়নের আওতায় আসবে। তাই সকলকে শুনা, পড়া, বলা ও লেখার দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানকে

ভূমিকা রাখতে হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। পাশাপাশি সকল শিক্ষককে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আরো দক্ষ করে গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে চাঁদপুর সদর উপজেলা ইউআরসি ইন্সট্রাক্টর ছাদেক হোসেন বলেন, ‘সরকারি স্কুলের পাশাপাশি বেসরকারি তথা কিন্ডারগার্ডেট স্কুলের প্রতিও সরকার সমান গুরুত্ব দিচ্ছে। তাই সব ধরনের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেই বিদ্যালয় পর্যায়ে জাতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়নের আওতায় এনেছে। জাতীয় শিক্ষানীতী কিন্ডারগার্টেন স্কুলকে বাদ দিয়ে নয়। বরং সরকার মনেকরছেন কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোও দেশের শিক্ষাক্ষেত্রে

বিশাল অবদান রেখে চলেছে। এছাড়া দেশের সচেতন নাগরিকদের সন্তানরাই এসব স্কুলে পড়াশুনা করেন। তাই এখানে অবশ্যই শিক্ষার যথেষ্ট উন্নয়ন রয়েছে। তাই সরকার এই সেক্টরকে বাদ দিয়ে এই জাতীয় শিক্ষার্থী

মূল্যায়নের চিন্তা করছে না। বরং এর আওতায় রেখে গুরুত্ব দিয়ে তার যথাযথ বাস্তবায়নের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তাই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানকে আজ আমরা ডেকে এনে এ ব্যাপারে গুরুত্ব সহকারে অবহিত

করছি। আমরা মনেকরি জতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়নে কিন্ডারগার্টেনগুলো যথেষ্ট ভালো করবে।

বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি ওমর ফারুকের সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সবুজ ভদ্র, সহ-সভাপতি আল্লামা মাহফুজ

উল্যাহ খান ইউসুফী, চাঁদপুর সদর উপজেলা সভাপতি গোলাম হোসেন টিটু, সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন, রঘুনাথপুর কেজি স্কুলের সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক মুরাদ হোসেন খান, ইউনাইটেড মডেল

স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক এম ফরিদুল ইসলাম উকিল, ওয়াইডব্লিউসি স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক কবিতা সাহা, চাঁদপুর আইডিয়াল একাডেমীর প্রধান শিক্ষক খান মোঃ নিয়াজ মোর্শেদ এবং কালেক্টরেট স্কুল, রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজসহ সদর উপজেলার প্রায় ৪০ টি কিন্ডারগার্টেন স্কুল প্রধানগণ এবং প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.