বিশুদ্ধ বায়ু সংকট মোকাবেলায় পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি

 

কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল

বাংলাদেশের মাত্র ১০টি জেলার বাতাস বিশুদ্ধ। বাকি সব জেলার বাতাস স্বাস্থ্য উপযোগী নয়। দূষিত বাতাসে ভেসে বেড়ানো জীবাণুর সংক্রমণে প্রতিবছর দেশে লক্ষাধিক মানুষ মারা যায়। এ জন্য বিশুদ্ধ বাতাসের প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। এখন বাজারে এমন অনেক ডিভাইস পাওয়া যায় যেগুলোতে বিশুদ্ধ বাতাসের নিশ্চয়তা মেলে।

স্বাস্থ্য সতর্কতা না থাকার কারণে প্রতিবছর বায়ুদূষণজনিত রোগে প্রায় দেড় লাখ মানুষ মারা যায়। এই যখন অবস্থা তখন মড়ার ওপর খাঁড়া ঘা হিসেবে দেখা দিয়েছে বাতাসে ভেসে বেড়ানো করোনাভাইরাসের জীবাণু। বাতাসে ভেসে থাকা জীবাণু থেকে দূরে থাকতে ব্যবহার করতে হচ্ছে মাস্ক। তাও আবার

 

কেউ পরছেন, তো কেউ করছেন থোড়াই কেয়ার। তাহলে কী করোনা বা বাতাসে ভেসে বেড়ানো বিভিন্ন ভাইরাস ও ক্ষতিকর উপাদান থেকে রেহাই

পাওয়া সম্ভব নয়? এমন প্রশ্নের উত্তর হয়তো মিলবে আধুনিক বিজ্ঞানের কাছে নানা ডিভাইসের মাধ্যমে।

 

তাই বিশুদ্ধ বায়ু সংকট মোকাবেলায় যুযোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.