মতলব দক্ষিণে মজুত শেষ হওয়ায় বুস্টার ডোজ বন্ধ

মতলব প্রতিনিধি: চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় শনিবার থেকে মডার্না টিকার বুস্টার ডোজ (তৃতীয় ডোজ) দেওয়া বন্ধ রয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা না পেয়ে হতাশ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন অনেকে। ওই টিকার মজুত শেষ হয়ে যাওয়ায় এবং নতুন করে সরবরাহ না আসায় এমনটা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, এ উপজেলায় সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে জানুয়ারি থেকে গত সপ্তাহ পর্যন্ত বুস্টারের জন্য মোট ৪ হাজার ৭০ ডোজ মডার্না টিকার বরাদ্দ আসে। গত ৯ জানুয়ারি থেকে বুস্টার ডোজ প্রদানের কার্যক্রম শুরু হয়।
গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৪ হাজার ৭০ জনকে এ ডোজের টিকা দেওয়া হয়। প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৮০ জন বুস্টার ডোজ পেয়েছেন। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার ৬০ জনকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার পর মজুত শেষ হয়ে যায়। এরপর নতুন করে বুস্টার ডোজের টিকা সরবরাহ করা হয়নি। এ কারণে আজ শনিবার থেকে এ ডোজের টিকা দেওয়া বন্ধ রয়েছে।
সূত্রটি আরও জানায়, এ উপজেলায় ১ লাখ ৮৪ হাজার ২৬১ জনকে সিনোভ্যাক ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়। দ্বিতীয় ডোজ পান ১ লাখ ২৪ হাজার ৫২ জন।
দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য বিভিন্ন বয়সী লোকজন জড়ো হয়েছেন। তাঁদের অনেকেই দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করছেন। টিকা দিতে না পেরে তাঁরা হতাশ মনে ফিরে গেছেন বাড়ি।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে উপজেলার মতলব সরকারি কলেজের এক শিক্ষক বলেন, বুস্টার ডোজের টিকা গ্রহণের জন্য বেলা ১১টায় ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখানে ৪৫ মিনিট দাঁড়িয়ে থাকার পর এক চিকিৎসকের মাধ্যমে জানতে পারেন, মজুত শেষ হয়ে যাওয়ায় টিকা দেওয়া বন্ধ রয়েছে। এ খবর পেয়ে বাসায় চলে যান অনেকে।
জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রাজিব কিশোর বণিক বলেন, মজুত শেষ হওয়ায় বিষয়টি সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে জানানো হয়েছে। বরাদ্দ এলে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কার্যক্রম আবার শুরু হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.