হাজীগঞ্জে পরিত্যক্ত ভবনে ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ভবনে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। দুর্ঘটনার আশঙ্কায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও তাঁদের অভিভাবকেরা আতঙ্কে রয়েছেন।

কোভিড-১৯ এর প্রভাবে দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ ছিল। সম্প্রতি বিদ্যালয় খুলেছে। শুরু হয়েছে ক্লাসও।

সরেজমিনে দেখা যায়, হাজীগঞ্জ উপজেলার গন্ধর্বপুর উত্তর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩টি ভবন রয়েছে। তিনটির মধ্যে একটিতে অফিস কক্ষ ও শিশু শ্রেণির ক্লাস নেওয়া হয়। বাকি ২টি ভবন জরাজীর্ণ। একটি ভবনের ওপর ত্রিপল দিয়ে ঢেকে কোনোভাবে ক্লাস নেওয়া হতো। কিন্তু দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় বর্তমানে এই ভবনটি ক্লাস নেওয়ার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বিদ্যালয়টিতে ৪৫৫ জন শিক্ষার্থীদের জন্য মাত্র দুইটি শ্রেণিকক্ষ রয়েছে। অনেকটা বাধ্য হয়ে এই পরিত্যক্ত ভবনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিতে হচ্ছে।

অথচ এখানে বৃষ্টি হলেই পানি পড়ে। দরজা-জানালাও নেই কয়েকটি কক্ষে। শিক্ষার্থীদের বসার পর্যাপ্ত বেঞ্চও নেই। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আয়েশা, সুমি, বিল্লাল ও শুভ বলল, শ্রেণিকক্ষের ওপরে ফাঁকা, বৃষ্টি ও রোদ সব সময় তাদের ওপরে পড়ে। ঠিকমতো বসতেও পারে না। বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের দাবি জানায় এই শিশুরা।

হাজীগঞ্জ প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.