ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে : এমপি রুহুল

মতলব উত্তর প্রতিনিধিচাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজিকান্দি ইউনিয়নে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ ‘ স্বাধীনতা ৭১’এর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্বোধন করেন চাঁদপুর-২ আসেনের সংসদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি নুরুল আমিন রুহুল বলেন, বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ অর্জন স্বাধীনতা। সেই স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে হবে।
তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুদৃঢ় নেতৃত্বে এদেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করে। অনেক আত্মত্যাগের বিনিময়ে আমরা অর্জন করি স্বাধীনতা। এদেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সঠিকভাবে গড়ে তুলতে হলে তাদের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে হবে।
তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলা ১০৪নং ছোট চরকালিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ ‘ স্বাধীনতা ৭১’( ফরাজিকান্দি ইউনিয়নের ৫৫ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা নামে স্মৃতিস্তম্ভ) এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন অবসরপ্রাপ্ত আফজাল হোসেন গাজীর সভাপতিত্বে ও যুবলীগ নেতা রাজিবুল আলম রাজিবের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং ছেংগারচর পৌরসভার প্রশাসক মো. আল এমরান খান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল, জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য তাসলিমা আক্তার আখিঁ, ফরাজিকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিম।
বক্তব্য রাখেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) বেলায়েত হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ হান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুদ্দীন গাজী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহ মো. নাছির উদ্দীন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ প্রধান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আব্দুল হাকিম তানভীর, মতলব উত্তর প্রেসক্লাবের সভাপতি বোরহান উদ্দিন ডালিম, ছোট চরকালিয়া সপ্রাবি’র সহকারী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভের বাস্তবায়নকারী গোলাম মোস্তফা গাজী সুমন।
আলোচনা শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করেন আলোর সন্ধান যুব সংঘ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *