মতলবে ইজিবাইক হারিয়ে চালকের মৃত্যু

মতলব প্রতিনিধিচাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার পচ্চিম নাগদা গ্রামে ইজিবাইক চুরির শোক সইতে না পেরে আজ শুক্রবার দুপুরে আবুল বাশার (২৭) নামক ইজিবাইক চালক হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। সে ওই গ্রামের মৃত মাওলানা কপিল উদ্দিনের ছেলে। তার মৃত্যুতে সজনদের মাঝে এক হৃদয়বিদারক আহাজারি দেখা যায়। স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (৯ মার্চ) রাতে নাগদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাজারে গেরেজের তালা ভেঙে তিনটি ইজিবাইক চুরি করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ওই তিনটির মালিক তিনজন। একটির মালিক তার বড় ভাই আবুল কালাম ও অপরটির মালিক আব্দুল মোতালেব মোল্লা। তিনজনের মধ্যে সবচেয়ে গরীব ও অসহায় হলেন আবুল বাসার। ইজিবাইকের দৈনিক আয় দিয়ে স্ত্রী এবং ২ ও ৪ বছরের দুটি কণ্যা সন্তান নিয়ে সংসার চলতো তাদের।
বড় ভাই হারুন বলেন,ইজিবাইকটি চুরি হওয়ার পর থেকেই তার ভাই আবুল বাসার অসহায়ের মতো বাড়ীতে বসে বসে চিন্তা করতো, এখন কিভাবে তার সংসার চলবে। শুক্রবার সকাল আনুমানিক ৮টায় বাড়ীর পার্শ্বে একটি জমিনে গরুর ঘাস কাটতে গেলে সেখানে হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়লে সাথে সাথে উদ্ধার করে প্রথমে মতলব ও পরে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।দাউদকান্দি যাওয়ার পর সে মারা যায়। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মনজুর হোসেন রিপন বলেন, ইজিবাইকটি চুরি হওয়ার পর থেকে ছেলেটি কর্মহীন হওয়ায় নানা চিন্তায় সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তার সংসারের উপার্জনের মাধ্যমই ছিল ইজিবাইকটি।একটি এনজিও থেকে ঋণ উত্তোলন করেন ইজিবাইকটি ক্রয় করেছে। যার কিস্তি পরিশোধ করতে পারেনি এখনো। থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মিয়া বলেন, চুরির বিষয়টি কেউ জানায়নি।তবে এলাকাবাসীর মাধ্যমে ইজিবাইক চালকের মৃত্যুর বিষয়টি আজকে শুনেছেন। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.