মতলব উত্তরে সাথী ফসলে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের

স্টাফ রিপোর্টার চাঁদপুর জেলার দুটি সেচ প্রকল্প ও বেড়ি বাধের বাহির এলাকার আবাদি জমিগুলোতে সাথী ফসল আবাদে কৃষকদের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। জলাশয় ভরাট ও কৃষি জমিতে বাড়ি ঘর এবং অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণ করায় কৃষি জমির পরিমাণও হ্রাস পাচ্ছে আসংখ্যা জনক হারে। এমন পরিস্থিতিতে সাথী ফসল খাদ্য উৎপাদনে সহায়তক হবে মনে করেন কৃষি সংশ্লিষ্টরা।

জেলার মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনা ধনাগোদা সেচ প্রকল্প ও সদর ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা নিয়ে চাঁদপুর সেচ প্রকল্প এলাকায় এখন আবাদি জমিগুলোতে বেশিরভাগ ধানের আবাদ বেশী হয়। তবে কৃষকদেরকে প্রশিক্ষণ দেয়ার কারণে একই জমিতে একই সময় একাধিক ফসল উৎপাদন রীতি চালু হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে কৃষি বিভাগকে এই বিষয়ে তাগিদ দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি চাঁদপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখাগেছে একই জমিতে একাধিক ফসলের দৃশ্য। চাঁদপুর শহরের দর্জিঘাট এলাকায় ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে একই জমিতে আবাদ করা হয়েছে ঢেড়স, পাট ও ধইনচা। এর আগে এই জমিতে মৌসুমী অন্য সব্জির আবাদ হয়েছে। তবে বেড়িবাধের বাহিরের জমিগুলোতে বর্ষা মৌসুমে পলি মাটি পড়ার কারণে জমিগুলো উর্বর থাকে। একটু পরিচর্যা করলেই এসব জমি থেকে একাধিক ফসল একই সময় আবাদ করা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.