আবারো নদীগর্ভে বিলীনের পথে চাঁদপুর বড় স্টেশন মাছঘাট

পদ্মা-মেঘনার প্রবল স্র্রেতের ফলে ডাকাতিয়ার নদীর পাড়ে অবস্থিত চাঁদপুর বড় স্টেশন মাছঘাট আবারো নদীগর্ভে বিলীন হতে যাচ্ছে। মাছঘাটের বেশ কিছু সিসি ব্লক ইতোমধ্যে দেবে যাওয়ায় আতঙ্কে রয়েছেন মাছ ব্যবসায়ী ও জেলেরা ।রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বড় স্টেশন মাছঘাটের ব্লক দেবে যেতে দেখা যায়।

চাঁদপুর মৎস্য বণিক সমবায় সমিতির কর্মকর্তারা জানান, চাঁদপুর শহররক্ষা বাঁধের পাশে অবস্থিত এই ঘাটটির বেশ কিছু ব্লক নদীগর্ভে চলে গেছে। এতে পুরো মাছঘাট এলাকা নদীতে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করছেন। ঘাট বিলীন হলে তাদের পথে বসতে হবে।

মৎস্য বণিক সমবায় সমিতির পরিচালক আব্দুল খালেক বেপারী বলেন, মেঘনার পানিপ্রবাহ প্রবল হওয়ায় পদ্মা-মেঘনা-ডাকাতিয়া নদীর ত্রিমোহনায় সৃষ্ট হচ্ছে ঘূর্ণিপাক। যার কারণে মাছঘাট এলাকায় আবারো ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে ঐতিহ্যবাহী মাছঘাট। এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া জরুরী।

চাঁদপুর মৎস্য বণিক সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল বারী জমাদার বলেন, ওপেন নিলামে ইলিশ বিক্রি হয় বলে এই মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র সবার কাছে বেশি জনপ্রিয়। দক্ষিণাঞ্চলের সব ঘাট থেকে রেল, সড়ক ও নদীপথে এই বড় স্টেশন ঘাটে মাছ আসে বলে এটাকে দক্ষিণাঞ্চলের সবচেয়ে বড় মাছঘাট বলা হয়। লোকাল মার্কেট, সিলেট এবং উত্তরবঙ্গে এখানকার ইলিশ বেশি যাচ্ছে।

প্রতিদিন ৫শ’ থেকে ৬শ’ মণ ইলিশ এখন ঘাটে আমদানি হচ্ছে। কিন্তু ইলিশ ল্যান্ডিং সেন্টারটি নদীতে বিলীন হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। বেশ কিছু সিসি ব্লক দেবে গেছে। এটি রক্ষা করতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড চাঁদপুর পওর বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এস. এম. রেফাত জামিলকে এ বিষয়ে অবহিত করা হলে তিনি বলেন, আমরা দ্রুতই বড় স্টেশন মাছঘাট এলাকার ব্লক দেবে যাওয়া স্থান পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.