মাদক বহনে নারী সংশ্লিষ্টতা দুখঃজনক

কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল
মাদককারবার, মাদক পচার, মাদক সরবরাহ ও মাদক সেবন এখন চাঁদপুরের রন্দে রন্দে ঢুকে পড়েছে। সম্প্রতি অধিক হারে মাদক বহনে নরীদের সম্পৃক্ততা বৃদ্ধি পেয়েছে। গতপরশু মতলব উত্তরে ৪ নারী মাদক কারবারি আটক হয়েছে পুলিশের হাতে। এর আমরা একসাথে একাধিক নারী মাদক নিয়ে আটক হওয়ার ঘটনা খুব একটা বেশী নয়। মাদক বহনে নারীদের এমন সংঘবন্ধতা অবশ্যই উদ্বেগের বিষয় বটে। কারণ এভাবে বোরকা পরিধান করে নারীদের মাদক পাচার সমাজকে আরো ভয়াবহ অবস্থায় নিয়ে যাবে এতে কোন সন্দেহ নেই।
আমাদের দেশে নারীদের ঘরসংসার নিয়েই সুখের সংসার গড়ে ওঠে। কিন্তু এভাবে মাদকের সাথে সম্পৃক্ততার কারণে জেলে যাওয়ার রাস্তা করা পরিবারকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলছে। কথা হলো এভাবে মাদকের সাথে নারী সংশ্লিষ্টতা বাড়তে থাকলে পরিবারের মধ্যে নৈতিক অবক্ষয় সৃষ্টি হবে। আর এটা হবে আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাজের জন্য অত্যন্ত ভয়াবহ ক্ষতির কারণ। তাই এ ব্যাপারে আমাদের পরিবারের নারী সদস্যকে শুধুমাত্র টাকা রোজগারের হাতিয়ার বানানো সঠিক নয়। সঠিক পথে সঠিক ইনকাম কম হলেও এরমধ্যে শান্তি ও সুখ রয়েছে। কিন্তু পাপের রাজ্যে কোন সুখ নেই। এ ব্যাপারে সমাজ সচেতন হওয়া অপরিহার্য। পাশাপাশি রাষ্ট্র যেন মাদকের সাথে নারী সংশ্লিষ্টতা বন্ধে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করবেন এমনটাই আমাদের প্রত্যাশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.