মানিকের নির্দেশেই হামলা করা হয়েছে : দেওয়ান শফিকুজ্জামান

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী ২ এপ্রিল চাঁদপুর জেলা বিএনপির সম্মেলনকে কেন্দ্র করে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করায় সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দেওয়ান মোঃ শফিকুজ্জামান এর বাড়িতে হামলা করেছে ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ।
২৯ মার্চ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের বিটি রোডস্থ তার নিজ বাড়ি হাবিব ভিলায় এ হামলার ঘটনাটি ঘটে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। দুপুর ৩টায় চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই আঃ কুদ্দুস সঙ্গিয় সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
দেওয়ান শফিকুজ্জামান চাঁদপুর জেলা বিএনপির বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক, সদর থানা বিএনপির সাবেক ২ বারের সভাপতি ও চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।
সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দেওয়ান শফিকুজ্জামান জানায়, চাঁদপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন পাটওয়ারী, যুগ্ম সম্পাদক সোহেল অরফে নায়ক সোহেল এর নেতৃত্বে ১০টি মটরসাইকেল ও অটোরিক্সা নিয়ে লোকজন অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে বাড়ি ভাংচুর করে ও সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠার চেস্টা করে। নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর জন্য গত কয়েকদিন ধরে মোবাইলে হুমকি-ধমকি প্রদান করা হচ্ছে। আমার ভোটারদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।
তিনি বলেন, আমি জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির একজন সদস্য। দলের সম্মেলন আসলে প্রার্থীরা আনন্দে মাঠে কাজ করবে। আমি কোন প্রচার প্রচারনা করতে পারছি না। আমি ব্যক্তি অন্যায় করতে পারি, তবে আমার বাসা-বাড়ি কেন ভাংচুর করা হলো। কোন কিছুই আমাকে নির্বাচন থেকে ধরে রাখতে পারবে না। বর্তমানে আমি নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। ইনশাল্লাহ আগামী ২ এপ্রিল আমি সাধারণ সম্পাদক পদে আনারস মার্কায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবো।
তবে আমি দলের উদ্ধোর্তন নেতৃবৃন্দকে বিষয়টি অবহিত করেছি। তাদের সাথে পরামর্শ করেই পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
শেখ ফরিদ আহম্মেদ মানিকের নির্দেশে হামলা হয়েছে : দেওয়ান শফিকুজ্জামান
এদিকে হামলার জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দেওয়ান শফিকুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, ‘জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের নির্দেশনায় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন পাটওয়ারী, যুগ্ম সম্পাদক সোহেল অরফে নায়ক সোহেল এর নেতৃত্বে ১০টি মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা নিয়ে লোকজন অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে বাড়ি ভাঙচুর করে ও সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠার চেষ্টা করে। নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানোর জন্য গত কয়েকদিন ধরে মোবাইলে হুমকি-ধমকি প্রদান করা হচ্ছে। আমার ভোটারদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমি জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির একজন সদস্য। দলের সম্মেলন আসলে প্রার্থীরা আনন্দে মাঠে কাজ করবে। আমি কোন প্রচার প্রচারনা করতে পারছি না। আমি ব্যক্তি অন্যায় করতে পারি, তবে আমার বাসা-বাড়ি কেন ভাংচুর করা হলো। কোন কিছুই আমাকে নির্বাচন থেকে ধরে রাখতে পারবে না। বর্তমানে আমি নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। ইনশাল্লাহ আগামী ২ এপ্রিল আমি সাধারণ সম্পাদক পদে আনারস মার্কায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবো।’
তবে আমি দলের উদ্ধোর্তন নেতৃবৃন্দকে বিষয়টি অবহিত করেছি। তাদের সাথে পরামর্শ করেই পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য দেওয়ান শফিকুজ্জামান চাঁদপুর জেলা বিএনপির বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক, সদর থানা বিএনপির সাবেক ২ বারের সভাপতি ও চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.