মুনিরা মিঠু এবার নায়িকা

দেশের নাটকে বেশির ভাগ তরুণ-তরুণীকে দেখা যায় নায়ক-নায়িকার চরিত্রে। বয়সী বা মধ্যবয়সী অভিনয়শিল্পীদের তেমন একটা প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ থাকে না। যে কারণে নাটকের গল্পে বেশির ভাগ গুরুত্বপূর্ণ সহ-অভিনেত্রী হিসেবেই দেখা যায় অভিনেত্রী মনিরা মিঠুকে। প্রায়ই তাঁকে শুনতে হয়, আপনাকে নায়িকা চরিত্রে দেখতে চাই। সেই ভক্তদের জন্য সুখবর দিলেন মনিরা মিঠু।

কখনো মা, কখনো মুক্তিযোদ্ধা, কখনো প্রতিবাদী নারীাসহ গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মনে অনেক আগেই জায়গা করে নিয়েছেন মনিরা মিঠু। কিন্তু দর্শক যে নায়ক-নায়িকাপ্রধান গল্পে নায়িকা হিসেবে তাঁকে দেখতে চান, সেই সুযোগ কিছুটা কম হতো। সেই সুযোগ পেয়ে মনিরা মিঠু ভক্তদের উদ্দেশে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘অনেক কথা জমে ছিল, শুধু এইটুকু না বললেই না! আমার ভক্ত যাঁরা আমাকে “নায়িকা” চরিত্রে দেখতে চাইতেন, তাঁদের জন্য সুখবর। এই নাটকে আমি “নায়িকা” আবার “মা”-এর চরিত্রে অভিনয় করেছি।’ নাটকে তাঁর সহ-অভিনেতা চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান। সম্প্রতি নাটকটির শুটিং শেষ হয়েছে।

মুনিরা-মিঠু-এবার-নায়িকা

নাটকটির নাম ‘নয়া লায়লা, নয়া মজনু’। এটি পরিচালনা করেছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের সহকারী পরিচালক সোহাগ রানা। মনিরা মিঠু কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘সুযোগটির জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই পরিচালক, প্রযোজক, রাজের সিনেমাওয়ালা টিমের প্রত্যেক সদস্যকে। আর হ্যাঁ, আমার নায়িকা হওয়ার বয়স নেই। দর্শক, আমার ভুলত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।’

একক ও ঈদ ধারাবাহিক নাটক নিয়ে টানা ব্যস্ত সময় পার করছেন মনিরা মিঠু। অভিনয় করেছেন বেশ কিছু সিনেমায়। তাঁর অভিনীত ‘নয়া লায়লা, নয়া মজনু’ নাটকে আরও অভিনয় করেছেন তামিম মৃধা, সামিরা খান মাহি। তরুণ এই অভিনয়শিল্পী জুটির প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে লিখেছেন, ‘তাদের অভিনয়ে মুগ্ধ আমি, তোমাদের সাপোর্ট না পেলে স্বাচ্ছন্দ্যে অভিনয় করতে পারতাম না, ভালোবাসা আদর নিয়ো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.