মেঘনা নদীতে এক চাঁদাবাজ আটক

স্টাফ রিপোর্টার: চাঁদপুর সদর উপজেলার ১১ নং ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নের আলুর বাজার এলাকায় মেঘনা নদীতে রাতের আঁধারে চাঁদাবাজি কালে রাশেদ চৌকিদার(২২) কে আটক করেছে আলুর বাজার নৌ পুলিশ।

জান যায় মেঘনা নদীতে বরিশাল, পিরোজপুর সহ দেশের দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য চলাচলরত বিভিন্ন ধরনের নৌ-যান আলুর বাজার এলাকার মেঘনার শাখা নদীতে রাতে বিশ্রামের জন্য অবস্থান নেয়। এসময় স্থানীয় চাঁদাবাজরা দীর্ঘদিন চাঁদা নিয়ে আসছেন। নদীতে চলাচলকারী পন্যবাহী বলগেট এর সুকানী মোঃ উজ্জল চাঁদাবাজির বিষয়টি আলুর বাজার ফাঁড়িতে মৌখিক অভিযোগ করেন। পরে অফিসার ইনচার্জ জেম এম সিরাজুল কবির এর নেতৃত্বে সাব ইন্সপেক্টর জহিরুল হকের তত্বাবধানে দুই রাত বলগেটে অবস্থান করে চাঁদাবাজ রাশেদ কে ধরতে সক্ষম হন। এছাড়া চাঁদাবাজ দলের অন্য সদস্যরা পালিয়ে জান।

গত ২০ মার্চ রবিবার রাত ১২ টায় চাঁদাবাজির সময় হাতেনাতে আটক করা হয়। পরদিন সোমবার মোঃ উজ্জ্বল বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামীকরে অজ্ঞাত ২/৩ জনের বিরুদ্ধে ৩৮৫/৩৮৬/৩৪ দ্বারায় পেনাল কোর্টে মামলা করা হয়। মামলার নাম্বার ৫৮, ২১/০৩/২০২১ইং আসামীরা হলেন রাশেদ চৌকিদার (২২), সুরুজ বকাউল(৪০), ফারুক মিঝি(৩৯), সাদ্দাম মিঝি(২৬), মোঃ বিল্লাল খান তাদের প্রত্যেকের বাড়ি সদর উপজেলার ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নে।

এব্যাপারে আলুর বাজার নৌ পুলিশ ফাঁড়ির সাব ইন্সপেক্টর জহিরুল হক জানান এডিসনাল আইজিপির নির্দেশ মোতাবেক যাত্রীবাহি এবং পন্যবাহী নৌযান নির্বিঘ্নে চলাচলের জন্য আমরা নৌ পুলিশ সবসময় টহল দিয়ে তাদের নিরাপত্তা দিয়ে থাকি। চাঁদবাজি মালর অন্নান্য আসামী এবং অজ্ঞাত আসামীদের ধরে আইনের আওতায় নিয়ে আসবো এবং আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.